কারবালা এলাকায় বিউটি পার্লারের অন্তরালে অবৈধ কারবারের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোর শহরের কারবালা এলাকায় বিউটি পার্লারের অন্তরালে ইয়াবা ও যৌন ব্যবসার অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার কারবালা এলাকার অর্ধশতাধিক মানুষ পুলিশ সুপারের কাছে এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ করেছেন।

অভিযোগে এলাকাবাসী দাবি করেছেন, শহরের কারবালা এলাকার নাইটকুইন বিউটি পার্লারের মালিক নাজমা ও পার্লারের বাড়ির মালিক আজিজুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে ইয়াবা ব্যবসা ও অবৈধ যৌনব্যবসার সাথে জড়িত। আজিজুল ইতোপূর্বে ইয়াবা ও নারীসহ পুলিশের হাতে ধরাও পড়েছে। আর পার্লারের মালিক নাজমা পার্লার ব্যবসার আড়ালে কলেজছাত্রী ও নারীদের দিয়ে যৌনব্যবসা পরিচালনা করছেন। তিনি বিভিন্ন হোটেল ও বাড়িতে ‘কলগার্ল’ সরবরাহ করে থাকেন বলেও লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে। এমনকি কলগার্ল হিসেবে যেসব মেয়েদের নাজমা ব্যবহার করে থাকেন এবং যেসব ঠিকানায় সরবরাহ করে থাকেন তার তালিকাও ওই অভিযোগপত্রে উল্লেখ করা হয়েছে। অভিযোগপত্রে কারবালা এলাকার ৫৪ জন বাসিন্দা স্বাক্ষর করেছেন।
এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে নাইটকুইন বিউটি পার্লারের মালিক নাজমা আক্তার বলেন, এ ধরণের অভিযোগের কোনো সত্যতা নেই। এক বছর আগেও একটি চক্র এ ধরণের অভিযোগ দিয়েছিল। তখনও এর কোনো সত্যতা পাওয়া যায়নি।

শেয়ার