ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যে যশোরে শবেবরাত পালিত

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোরে মুসলিম উম্মার ঐক্য, শান্তি-সমৃদ্ধি এবং দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনার মধ্যদিয়ে পবিত্র শবে বরাত পালিত হয়েছে। করোনা ভাইরাস পরিস্থিতির জন্য সরকারি স্বাস্থ্য নিদের্শনা মেনে মুসল্লিরা ইবাদত করেছেন। সোমবার সন্ধ্যার পরে মসজিদে মুসল্লিদের পদচারণা বেড়ে যায়। মসজিদের মাইকে মাইকে বিভিন্ন মাসলা, তালিমসহ বয়ান করেন ইমামরা।
মহিমান্বিত এই রাতে যশোরের ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা পরম করুণাময়ের অনুগ্রহ লাভের আশা নিয়ে মসজিদে-বাড়িতে নফল নামাজ, কবর জিয়ারত, কোরআন তিলাওয়াত, জিকিরে মগ্ন ছিলেন। কবর জিয়ারতের জন্য উপশহর ও ঘোপ কবরস্থান এবং কারবালা কবরস্থান লাইটিং করা হয়েছিল। মুসল্লিরা মাগরিবের পর থেকে নিজেদের সুবিধা অনুযায়ী, অনেকে আবার এশার নামাজের পরে সম্মিলিতভাবে কবরস্থানে গিয়ে স্বজনদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে মোনাজাত করেন।
যশোর ২৫০শয্যা জেনারেল হাসপাতাল মসজিদের ঈমাম মাওলানা আব্দুল গণি জানান, এ বছর সরকারি স্বাস্থ্য বিধি মেনে মসজিদে ইবাদত-বানদেগি চলেছে। গত বছর মুসল্লিরা বাড়িতে ইবাদত করেছিলেন। মসজিদের মাইকের বয়ান মুসল্লিরা নিজ নিজ বাড়ি বসে শুনেছিলেন। এবার আল্লাহর রহমতে মুসল্লিরা মসজিদে ইবাদত ও আমল করার সুযোগ পেয়েছেন।
এদিকে শেষ রাতে মোনাজাতের সময় বিগত জীবনের পাপ মার্জনা এবং ভবিষ্যৎ জীবনের জন্য ও মৃত আত্মীয়-স্বজনের জন্য দোয়া এবং মুসলিম উম্মার ঐক্য, শান্তি-সমৃদ্ধি এবং দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনার করে আল্লাহর দরবারে দু’হাত তুলে মোনাজাত করেন মুসল্লিরা।

শেয়ার