ধাক্কায় পড়ে গিয়ে আহত মমতা, বলছেন ষড়যন্ত্র

সমাজের কথা ডেস্ক॥ নির্বাচনী প্রচারে পশ্চিমবঙ্গের নন্দীগ্রামে গিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রেয়াপাড়ায় একটি মন্দিরে পূজা দিয়ে বের হওয়ার সময় ‘চার-পাঁচ জনের ধাক্কায়’ পড়ে গিয়ে তিনি মাথায়, কপালে ও পায়ে চোট পান। ষড়যন্ত্র করে তাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ মমতার।

কলকাতার দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকা জানায়, বুধবারের এ ঘটনার পর পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতাকে কলকাতায় নিয়ে যাওয়া হয়। বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত তার নন্দীগ্রামে থাকার কথা ছিল।

সাংবাদিকদের মমতা বলেন, যখন তিনি গাড়িতে উঠার চেষ্টা করছিলেন। তখন চার-পাঁচজন লোক তাকে ধাক্কা দেয়।

নিজের পা দেখিয়ে তিনি বলেন, ‘‘দেখেছেন কতটা ফুলে গেছে।”

পরিকল্পনা করে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘‘অবশ্যই এটা একটি ষড়যন্ত্র… ঘটনার সময় আমার চারপাশে কোনো পুলিশ ছিল না।”

এনডিটিভি জানায়, মাত্র একদিন আগেই ভারতের নির্বাচন কমিশন পশ্চিমবঙ্গ পুলিশের মহাপরিচালককে বদলি করে। তারপরই এ ঘটনা ঘটলো।

এ মাসের শেষ দিকে পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা নির্বাচন শুরু হবে। নির্বাচনে বড় যুদ্ধক্ষেত্রগুলোর একটি নন্দীগ্রাম।

দৈনিক আনন্দবাজার জানায়, নন্দীগ্রামে ভোটের প্রচার শেষে কলকাতায় ফিরে মমতার দল তৃণমূল কংগ্রেসের নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করার কথা ছিল। কিন্তু এখন প্রচারের মাঝপথে আহত অবস্থায় তাকে কলকাতায় ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। দলের কর্মকর্তারা জানান, তাকে এসএসকেএম হাসপাতালে ভর্তি করা হবে।

শেয়ার