নতুন দল গড়ার সম্ভাবনা বাতিল করলেন ট্রাম্প

সমাজের কথা ডেস্ক ॥ যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প জানিয়েছেন, নতুন রাজনৈতিক দল শুরু করার কোনো পরিকল্পনা নেই তার। রোববার ফ্লোরিডায় রক্ষণশীলদের এক সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেছেন বলে জানিয়েছে বিবিসি। ডেমোক্র্যাট জো বাইডেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর এই প্রথম একটি সম্মেলনে বক্তব্য রাখলেন ট্রাম্প। তিনি নতুন রাজনৈতিক দল গড়ার উদ্যোগ নিলে তা রিপাবলিকান ভোটকে বিভক্ত করে ফেলবে মন্তব্য করে ২০২৪ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তিনি ফের প্রার্থী হতে পারেন বলে ইঙ্গিত দেন। ট্রাম্প তীব্র ভাষায় তার উত্তরসূরী বাইডেনের সমালোচনা করে বলেন, “যুক্তরাষ্ট্রের নীতি আমেরিকা ফার্স্ট থেকে আমেরিকা লাস্ট এ চলে গেছে।” অভিশংসনের বিচার থেকে খালাস পাওয়ার কয়েক সপ্তাহ পর এসব কথা বললেন ট্রাম্প। ৬ জানুয়ারিতে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটলে প্রাণঘাতী দাঙ্গার ঘটনাকে কেন্দ্র করে সাবেক এই প্রেসিডেন্ট এখনও ফেইসবুক ও টুইটারের মতো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে নিষিদ্ধ হয়ে আছেন। ওই মাসেই হোয়াইট হাউস ছাড়ার পর থেকে তিনি ফ্লোরিডায় তার মার-আ-লাগো গলফ রিজোর্টে বসবাস করছেন। বিবিসি জানিয়েছে, রিপাবলিকান পার্টির ওপর তার প্রভাব অব্যাহত আছে, ফ্লোরিডার অরল্যান্ডোর কনজারভেটিভ পলিটিক্যাল অ্যাকশন কনফারেন্সে (সিপিএসি) ট্রাম্পের উপস্থিতির সময়ই তার ইঙ্গিত মিলে।
বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হওয়া সম্মেলনের মেজাজ তার অনুগতদের মাধ্যমে প্রবলভাবে ট্রাম্পপন্থি হয়ে ওঠে। তার যে অনুগতরা বক্তব্য রেখেছেন তাদের মধ্যে টেক্সাসের সিনেটর টেড ক্রুজ ও ট্রাম্পের ছেলে ডনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়ারও ছিলেন। এক ঘণ্টারও বেশি দেরি করে হায়াত রিজেন্সি হোটেলের সম্মেলন মঞ্চে ট্রাম্প হাজির হতেই তার সমর্থকরা উল্লাসে ফেটে পড়ে। এ সময় সম্মেলনে উপস্থিত অনেকের মুখেই মাস্ক ছিল না। ট্রাম্প বলেন, “আজ আমি আপনাদের সামনে দাঁড়িয়ে ঘোষণা করছি, চার বছর আগে আমরা একসঙ্গে যে অবিশ্বাস্য যাত্রা শুরু করেছিলাম তা শেষ হতে এখনও অনেক বাকি। “আজ বিকালে আমরা জমায়েত হয়েছি ভবিষ্যৎ নিয়ে কথা বলার জন্য- আমাদের আন্দোলনের ভবিষ্যৎ, আমাদের দলের ভবিষ্যৎ আর আমাদের ভালবাসার দেশের ভবিষ্যৎ নিয়ে।”

নতুন কোনো পার্টি শুরুর কথা বাতিল করে দিয়ে এ ধরনের ধারণাগুলোকে গুজব বলে অভিহিত করেন তিনি, বলেন এগুলো ‘ভুয়া খবর’। “এটা কী অত্যন্ত বুদ্ধিদীপ্ত হবে না? চলেন আমরা একটি নতুন দল শুরু করি এবং আমাদের ভোটকে ভাগ করে ফেলি যেন আর কখনো জিততে না পারি,” উপহাস করে বলেন তিনি। “আমাদের রিপাবলিকান পার্টি আছে। এটা আগে যা ছিল তার চেয়েও একতাবদ্ধ ও শক্তিশালী হতে যাচ্ছে।” নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পরাজয় এবং ক্যাপিটলে দাঙ্গার কারণে ব্যাপক সমালোচিত হওয়া সত্ত্বেও ট্রাম্প তার ভোটারদের মধ্যে এখন অত্যন্ত জনপ্রিয় বলে প্রকাশিত প্রতিবেদনগুলোতে ধারণা দেওয়া হয়েছে।
গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রে করা জরিপে দেখা গেছে, রিপাবলিকান দল ছেড়ে ট্রাম্প নতুন দল গড়লে জরিপে অংশ নেওয়া ট্রাম্পের ভোটারদের মধ্যে ৪৬ শতাংশ তার পক্ষে ভোট দেবেন।

শেয়ার