যশোর শামস্-উল-হুদা স্টেডিয়াম ।। উত্তর-পশ্চিম পাশের গ্যালারি নির্মাণসহ অবকাঠামোগত উন্নয়ন শিগগিরই

ইমরান হোসেন পিংকু
যশোর শামস্-উল-হুদা স্টেডিয়ামের অবকাঠামোগত উন্নয়নসহ গ্যালারি আধুনিকমানের করতে কাজ শুরু হচ্ছে শিগগিরই। দক্ষিণ-পশ্চিম পাশের গ্যালারির পর এবার উত্তর-পশ্চিম পাশের গ্যালারির কাজ শুরু হবে। পাশাপাশি মাঠে মাটি তুলে উঁচু করাও হবে আগামী ২-৩ মাসের মধ্যে। মোট ১৮ কোটি টাকার উন্নয়ন হবে যশোর শামস্-উল-হুদা স্টেডিয়ামে। এমনটাই জানিয়েছেন ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এমএ আকসাদ সিদ্দিকী শৈবাল।

যশোর জেলা ক্রীড়া সংস্থা সূত্র জানা যায়, গত ১৬ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের একটি দল সরেজমিনে ঘুরে গেছে। মোট ১৮ কোটি টাকার উন্নয়ন কর্মকান্ড হবে যশোর শামস্-উল-হুদা স্টেডিয়ামে। এই উন্নয়ন কর্মকান্ডের মধ্যে থাকবে মাঠে মাটি দিয়ে উঁচু করা, উত্তর-পশ্চিম পাশের পুরানো গ্যালারি ভেঙ্গে নতুন গ্যালারি নির্মাণ। এছাড়াও উত্তর-পশ্চিম পাশে প্রেসবক্সসহ বিভিন্ন কার্যক্রমের জন্য নতুন বিল্ডিং হবে। অন্যদিকে জেলা ক্রীড়া সংস্থার দুইতলা বিশিষ্ট অফিস নির্মাণ হবে এই অর্থে। খুব দ্রুত এজন্য টেন্ডার আহ্বান করার কার্যক্রম চলছে বলে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সরেজমিন দল জানিয়েছে। যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব তাজুল ইসলাম চৌধুরী নেতৃত্বে সরেজমিন যশোর জেলা ক্রীড়া সংস্থায় আসেন জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের পরিচালক সারোয়ার জাহান ও জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের প্রকল্প প্রকৌশলী আওলাদ হোসেন।
যশোর জেলা ক্রীড়া সংস্থার ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এমএ আকসাদ সিদ্দিকী শৈবাল বলেন, ‘দক্ষিণ-পশ্চিম পাশের গ্যালারির পর এবার মাঠে মাটি দিয়ে উঁচু করাসহ উত্তর-পশ্চিম পাশের গ্যালারির কাজ করা। মোট ১৮ কোটি টাকার কাজ হবে। এই অর্থের আরো কাজ হবে উত্তর-পশ্চিম পাশে প্রেসবক্সসহ বিভিন্ন কার্যক্রমের জন্য নতুন বিল্ডিং। অন্যদিকে জেলা ক্রীড়া সংস্থার দুইতলা বিশিষ্ট অফিস নির্মাণ হবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘ যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব তাজুল ইসলাম চৌধুরী নেতৃত্বের টিম জানিয়েছেন, আগামী ২ থেকে ৩ মাসের মধ্যে এই কাজ শুরু করবে। তবে আমরা সেই জায়গায় আরো ২ থেকে ৩ মাস বাড়িয়ে জুন অথবা জুলাইতে স্টেডিয়ামের এই উন্নয়নের কাজ শুরু হতে পারে বলে মনে করছি। আমরা ২০১৭ সালে মাঠে মাটি তোলা এবং উত্তর ও পূর্ব পাশের গ্যালারির জন্য একটি প্রকল্প জমা দিয়েছিলাম জাতীয় ক্রীড়া পরিষদে। আর সেই প্রকল্পের অনুযায়ী কাজ হবে।’

যশোর জেলা ক্রীড়া সংস্থায় জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের টিম আসলে এই সময় সৌজন্য স্বাক্ষত করেন জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি মির্জা আখিরুজ্জামান সান্টু, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এমএ আকসাদ সিদ্দিকী শৈবাল, যুগ্ম সম্পাদক এবিএম আখতারুজ্জামান, কোষাধ্যক্ষ সোহেল মাসুদ হাসান টিটো, সদস্য আনোয়ার হোসেন মোস্তাক, খায়েরুজ্জামান বাবু, শিমুল বিশ্বাস শিমু ও ইউসুফ হাসান।

শেয়ার