কেশবপুরে ১২ ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবার পেল মাথাগোঁজার ঠাঁই

কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি ॥ মুজিববর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীন ও গৃহহীনদের মাঝে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রদত্ত ঘর ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শনিবার সকালে উদ্বোধন ঘোষণা করা হয়। এসময় কেশবপুর উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ভূমিহীন ও গৃহহীন ১২ পরিবারের মাঝে প্রধান অতিথি হিসাবে ১২টি গৃহের দলিল, নামজারি খতিয়ান, সনদ ও ঘর প্রদান করেন যশোরের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক হুসাইন শওকত। উপজেলা নির্বাহী অফিসার এম এম আরাফাত হোসেনের সভাপতিত্বে ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইরুফা সুলতানার পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান যুদ্ধাহাত বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব কাজী রফিকুল ইসলাম ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এস এম রুহুল আমিন। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ভাইস চেয়ারম্যান নাসিমা সাদেক ও পলাশ মল্লিক, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান এইচ এম আমির হোসেন, সহ-সভাপতি রফিকুল ইসলাম পিটু, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার রিজিবুল ইসলাম, প্রোগ্রাম অফিসার আব্দুস সামাদ, উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এস আর সাঈদ, মজিদপুর ইউপি চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবীর পলাশ, উপজেলা যুবমহিলা লীগের সভাপতি মিনুরানী হালদার প্রমুখ।

জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের আশ্রায়ন-২ প্রকল্পের তত্ত্বাবধানে ও ভূমি মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় আশ্রায়ন-২ প্রকল্প এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে কেশবপুর উপজেলায় ১০৫টি পরিবারের জন্য ১০৫টি ঘর বরাদ্দ পাওয়া যায়। এর মধ্যে উপজেলার মজিদপুর ইউনিয়নের শ্রীফলা ও বিদ্যানন্দকাটি ইউনিয়নের তেঘরীতে ১২টি ঘর নির্মাণের কাজ সম্পন্ন শেষে মজিদপুর গ্রামের এস এম শরিফুল ইসলাম, প্রতাপপুর গ্রামের ফতেমা খাতুন, লক্ষীনাথকাটি গ্রামের জাহানারা বেগম, একই গ্রামের আবু দাউদ গোলদার, শ্রীফলা গ্রামের ইলিয়াস হোসেন, আবু সাঈদ, মমতাজ বেগম ও আব্দুল হালিম, বিদ্যানন্দকাটি ইউনিয়নের তেঘরি গ্রামের তবিবুর রহমান, ইকবল হোসেন ও শহর আলী গাজী এবং ভান্ডারখোলা গ্রামের ছালমা খাতুনের নিকট আনুষ্ঠানিকভাবে গৃহের দলিল, নামজারি খতিয়ান, সনদ ও ঘর প্রদান করা হয়।

শেয়ার