‘অনেক দিন পর’ ম্যাচ সেরা হয়ে উচ্ছ্বসিত মিরাজ

সমাজের কথা ডেস্ক॥ সিরিজ শুরুর আগেই মেহেদী হাসান মিরাজ বলেছিলেন, প্রতিপক্ষ ওয়েস্ট ইন্ডিজ বলেই পাচ্ছেন বাড়তি আত্মবিশ্বাস। পারফরম্যান্সেও তা ফুটিয়ে তুললেন তরুণ এই অফ স্পিনার। করলেন ক্যারিয়ার সেরা বোলিং। ম্যাচ সেরা হয়ে খুশিতে ভাসছেন মিরাজ।
মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুক্রবার দ্বিতীয় ওয়ানডে ৭ উইকেটে জিতে সিরিজ নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ। ২৫ রানে ৪ উইকেট নেন মিরাজ। তার আগের সেরা বোলিংও ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে, সেবার ২৯ রানে ৪ উইকেট পেয়েছিলেন তিনি।
২০১৮ সালের ডিসেম্বরে সিলেটের সেই ম্যাচেই ওয়ানডেতে প্রথমবার সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার জিতেছিলেন মিরাজ। তারপর এই প্রথম আবারও পেলেন পুরস্কারটি। ম্যাচ শেষের প্রতিক্রিয়ায় মিরাজের কণ্ঠে ছিল উচ্ছ্বাস।
“অবশ্যই আমি খুব খুশি, অনেকদিন পর ম্যান অব দা ম্যাচ হলাম। অনেক দিন পর আমরা ওয়ানডে খেলছি। আমি সত্যিই উচ্ছ্বসিত।”
প্রথম ম্যাচে খারাপ করেননি মিরাজ। তবে ৭ ওভারে ২৯ রান দিয়ে ১ উইকেট, মনমতো হয়নি তার। উন্মুখ ছিলেন, আরও ভালো কিছু করার জন্য।
“আমি ভালো বোলিং করিনি প্রথম ম্যাচে। এই ম্যাচে শক্তভাবে ফিরে আসতে পেরেছি। টিম ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে কথা বলেছি, সিনিয়র ক্রিকেটারদের সঙ্গেও। স্পিন কোচ সোহেল ভাইয়ের সঙ্গে অনেক কথা বলেছি। তিনি বলেছেন ঠিক জায়গায় বল রাখতে। সব মিলিয়েই এই ম্যাচে সাফল্য এসেছে।”
ওয়ানডেতে তরুণ অনেকেই এগিয়ে আসছেন। নিজের জায়গার জন্য লড়াই করতে হচ্ছে মিরাজকে। কঠিন এই লড়াইয়ে পাশে পাচ্ছেন অধিনায়ক তামিম ইকবালকে।
“তামিম ভাই দলের সিনিয়র ক্রিকেটার, অনেক সময়ই প্রেরণা জোগান। বিপিএলেও আমরা একসঙ্গে খেলি। সবসময়ই তিনি সমর্থন দেন আমাকে।”

শেয়ার