পাইকগাছায় নৈশ কোচে ডাকাতির ঘটনায় আরো ৬ জন আটক

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি ॥ পাইকগাছা থানা পুলিশ নৈশ কোচে ডাকাতির ঘটনায় আরো ৬ ডাকাত সদস্যকে আটক করেছে। তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে পুলিশ গত দু’দিনে মাদারীপুরসহ এলাকার বিভিন্ন স্থান থেকে তাদের আটক করে। মঙ্গলবার সকালে থানা চত্বরে সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে আসামিদের জড়িত থাকা এবং আটকের বর্ণনা দেন ওসি এজাজ শফী। এ সময় উপস্থিত গণমাধ্যম কর্মীদের সামনে আনা হয় আটক ডাকাত সদস্যদের।

উল্লেখ্য, ১৪ ডিসেম্বর উপজেলার গদাইপুর গেদুর দোকান সংলগ্ন কার্ত্তিকের মোড় নামক স্থানে রাত দেড়টার দিকে সড়কে গাছের গুড়ি ফেলে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা কিং ফিসার নৈশ পরিবহনে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পরিবহনের সুপার ভাইজার আছাফুর রহমান ১৫ ডিসেম্বর অজ্ঞাতনামা আসামি করে পাইকগাছা থানায় দস্যুতা মামলা করেন। যার নং-১১। ওই সময় ৩জনকে আটক করে। তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে ঘটনার ১ মাসের মধ্যে আরো ৬ ডাকাত সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ। তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করার মাধ্যমে সোমবার মাদারীপুর সহ এলাকার বিভিন্ন স্থান থেকে তাদের আটক করা হয়। আটককৃতরা হলেন, পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড গোপালপুর গ্রামের সাইদুল গাজী (২১), রাড়–লী গ্রামের ইমরান গাজী (২১), বাপ্পী গাজী (২১), গোপালপুর গ্রামের মেহেদী হাসান (২১), গদাইপুর গ্রামের আল-আমিন (৩৫) ও ফতেপুর গ্রামের তাকবীর হোসেন (২৩)। ওসি এজাজ শফী জানান, আটককৃতদের মধ্যে সাইদুল ও ইমরানকে মাদারীপুরের একটি ইট-ভাটা থেকে এবং অন্যান্যদের এলাকার বিভিন্ন স্থান থেকে আটক করা হয়। আটককৃতরা পরিবহন ডাকাতির ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। আটককৃতদের বিরুদ্ধে এক বা একাধিক মামলা রয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে আটককৃতদের পরিবহন ডাকাতির মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়।

শেয়ার