২ কিলোমিটারের মধ্যে স্কুল না থাকলে নির্মাণের সুপারিশ

সমাজের কথা ডেস্ক॥ কোনো এলাকায় দুই কিলোমিটারের মধ্যে প্রাথমিক বিদ্যালয় না থাকলে সেখানে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে তা নির্মাণের সুপারিশ করেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি।

বুধবার কমিটির বৈঠকে এ সুপারিশ করা হয়।

গত ডিসেম্বরে কমিটির বৈঠকে চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোলে সাড়ে ছয় কিলোমিটারের মধ্যে প্রাথমিক বিদ্যালয় না থাকার বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়। কমিটি মন্ত্রণালয়কে এ বিষয়ে প্রতিবেদন দিতে বলেছিল।

বুধবারের বৈঠকে মন্ত্রণালয় জানায়, নাচোলের বাসুগ্রামে কোনো সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নেই। এর সবচেয়ে কাছের স্কুল আছে সাড়ে ছয় কিলোমিটার দূরে। বাকি তিনটি স্কুলই সাত কিলোমিটার দূরে।

বৈঠকে বাসুগ্রামকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে ‘এক হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণ প্রকল্পের’ আওতায় অন্তরর্ভুক্ত করতে বলা হয়। একইসঙ্গে যেখানে সর্বনি¤œ দুই কিলোমিটারের মধ্যে প্রাথমিক বিদ্যালয় নেই সেখানেও অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বিদ্যালয় নির্মাণের সুপারিশ করা হয়।

বৈঠক শেষে কমিটির সদস্য ফেরদৌসী ইসলাম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “গত বৈঠকে বিষয়টি আমিই তুলেছিলাম। নাচোলের ওই এলাকায় স্কুল না থাকায় বৈঠকে বিষয়টি তুললে মন্ত্রণালয়ের কাছে জানতে চাওয়া হয়। আজ মন্ত্রণালয় বিস্তারিত জানিয়েছে।

“কমিটি দুই কিলোমিটারের মধ্যে স্কুল না থাকলে সেখানে প্রাইমারি স্কুল করতে বলেছে।“

বৈঠকে পূর্ববর্তী বদলী নীতিমালা বাতিল/সংস্কার কেন প্রয়োজন সে বিষয়ে মন্ত্রণালয়কে কমিটির কাছে বিস্তারিত ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে।

এছাড়া ‘ঢাকা মহানগরী ও পূর্বাচলে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাপন ও অবকাঠামো উন্নয়নসহ দৃষ্টিনন্দন করণ’ প্রকল্পের আওতায় মোট ৩৫৬টি স্কুলের মধ্যে প্রাথমিকভাবে ১৬০টি দৃষ্টিনন্দনকরণের নকশা উপস্থাপন করা হয়।

বৈঠকে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের অফিস দৃষ্টিনন্দন করার সুপারিশ করা হয়।

কমিটির সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে বৈঠকে সদস্য প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন, মেহের আফরোজ, আলী আজম মো. নজরুল ইসলাম বাবু, ফেরদৌসী ইসলাম এবং কাজী মনিরুল ইসলাম বৈঠকে অংশ নেন।

শেয়ার