শার্শায় ডিবির অভিযানে তিন কেজি গাঁজাসহ দু’জন আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোরের শার্শা থেকে তিন কেজি গাঁজাসহ দুইজন মাদক কারবারীকে আটক করেছে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। গত সোমবার ৩০ নভেম্বর বিকেলে উপজেলার শিবচন্দ্রপুর গ্রামের ওয়াবদা খাল পাড় থেকে তাদের আটক করা হয়। আটককৃতরা হলো, শার্শা উপজেলার হরিনাপোতা আজগর আলীর ছেলে নূর হোসেন ও নওশের আলীর ছেলে নাজিম উদ্দিন।

ডিবি পুলিশের ওসি সোমেন দাস জানিয়েছেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সোমবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে শার্শা উপজেলার শিবচন্দ্রপুর গ্রামের খালপাড় এলাকায় মাদক বিরোধী অভিযান চালানো হয়। এসময় ওই দুইজনকে তিন কেজি গাঁজাসহ আটক করা হয়। এই ব্যাপারে ওইদিনই আটককৃতদের বিরুদ্ধে শার্শা থানায় মামলা দিয়ে মঙ্গলবার যশোর চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।
গভীর রাতে শহরের প্রাণ কেন্দ্র দড়াটানা মোড় ট্রাফিক বক্সের সামনে সড়কে নেশা জাতীয় মাদকদ্রব্য এ্যালকোহল পান করে জনসাধারনের বিরক্ত সৃষ্টি করার অভিযোগে দুই মাতালকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এরা হচ্ছে, ব্রাম্মনবাড়িয়া জেলার সরাইল থানার কাকুরিয়া গ্রামের বর্তমানে যশোর শহরের ঘোপ সেন্ট্রাল রোড মসজিদের পাশে কচু মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়া নেয়ানুদ্দীনের ছেলে ইকবাল হোসেন ও স্থায়ী একই এলাকার বর্তমানে যশোর সদর উপজেলার ধর্মতলা খোলাডাঙ্গাদ এ্যাডভোকেট জিএম আবুল কালামের বাড়ির ভাড়াটিয়া জব্বারের ছেলে ফরিদ হোসেন।

যশোর শহরের পুরাতন কসবা পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই উজ্জল কবির জানান, রোববার দিবাগত গভীর রাত আড়াইটার সময় ইকবাল হোসেন ও ফরিদ হোসেন শহরের দড়াটানা মোড় ট্রাফিক বক্সের সামনে নেশা জাতীয় মাদকদ্রব্য এ্যালকোহল পান করে জনসাধারনের বিরক্ত সৃষ্টি করায় তাদেরকে গ্রেফতার করে। পরে তাদেরকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে জরুরী বিভাগে নিয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়। পরে তাদেরকে কোতয়ালি মডেল থানায় সোপর্দ করে মাদক আইনে মামলা দায়ের করে। সোমবার দুপুরে গ্রেফতারকৃতদের আদালতে সোপর্দ করে।

যশোর সদর উপজেলার বাহাদুরপুর থেকে সাড়ে তিন কেজি ওজনের ৩০টি সোনার বারসহ তিনজনকে আটক করেছে বিজিবি।

সোমবার (৩০ নভেম্বর) দুপুরে শরীয়তপুর হতে বেনাপোলগামী ফেম পরিবহনের একটি বাস তল্লাশি করে তাদের আটক করা হয়।

আটক ব্যক্তিরা হলেন, মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলার গোলপরায় গ্রামের গোষ্ঠবিহারী পোদ্দারের ছেলে রতনকুমার পোদ্দার (৪৯), ব্রাহ্মণবাড়ীয়ার নবীনগর উপজেলার মাঝিয়ারা গ্রামের মৃত মিন্টু সাহার ছেলে প্রদীপ সাহা (৫৫) ও রাজধানীর গেন্ডারিয়া থানার কালীগঞ্জ সাহা রোড এলাকার সোভল দত্তের ছেলে পংকজ দত্ত (৪৮)।
যশোর ৪৯ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল মো. সেলিম রেজা জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিজিবির সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ ফারুক হোসেনের নেতৃত্বে একটি টিম যশোর-মাগুরা সড়কের বাহাদুরপুর বাজারে অবস্থান নেয়। দুপুর একটার দিকে শরীয়তপুর হতে বেনাপোলগামী ফেম পরিবহনের একটি বাসের গতিরোধ করে তল্লাশি চালানো হয়। এসময় বাসের তিন যাত্রীর কাছ থেকে সাড়ে তিন কেজি ওজনের ৩০টি সোনার বার উদ্ধার করা হয়। যার আনুমানিক দাম দুই কোটি ৪১ লাখ ৫০ হাজার টাকা।
তিনি আরো জানান, উদ্ধার করা সোনার বার ও আটক ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মামলা করা হচ্ছে।

শেয়ার