ইন্দোনেশিয়ায় আগ্নেয়গিরির ভয়াবহ অগ্ন্যুৎপাত

সমাজের কথা ডেস্ক॥ ইন্দোনেশিয়ার পূর্ব নুসা টেঙ্গারা প্রদেশে জেগে উঠেছে ইলে লিউতোক আগ্নেয়গিরি। ভয়াবহ অগ্ন্যুৎপাতে চার কিলোমিটার এলাকা জুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে কালো ধোঁয়া। এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে ২ হাজার ৭শ’র বেশি মানুষ।

রোববার আগ্নেয়গিরি থেকে ছাই, লাভা বেরিয়ে আসতে শুরু করে। বিষাক্ত গ্যাস এবং লাভার স্রোত সম্পর্কে মানুষকে সতর্ক করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

ইন্দোনেশিয়ায় প্রায় ১৩০টি সক্রিয় আগ্নেয়গিরি আছে। যে কোনও দেশের তুলনায় সংখ্যাটা অনেক বেশি। কোনও কোনও আগ্নেয়গিরি বেশিমাত্রায় সক্রিয় থাকলেও পুরোপুরি অগ্ণ্যুৎপাত হতে কয়েক সপ্তাহ এমনকী কয়েকমাসও লেগে যেতে পারে।

ইন্দোনেশিয়ার জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা সংস্থার মুখপাত্র এক বিবৃতিতে বলেছেন, রাজধানী জাকার্তা থেকে প্রায় ২৬০০ কিলোমিটার পূর্বে হঠাৎই এই আগ্নেয়গিরি থেকে ছাই, লাভা বেরিয়ে আসতে দেখে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন এলাকার বাসিন্দারা।

পরিস্থিতি প্রত্যক্ষ করে ২৬ টি গ্রামের প্রায় ২ হাজার ৭৮০ মানুষ এলাকা ছেড়ে নিরাপদ আশ্রয়ে চলে যান। এ পর্যন্ত কেউ হতাহত হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি।

আগ্নেয়গিরি থেকে ক্রমাগত লাভা উদ্গিরণের ফলে গরম মেঘ, লাভা স্রোত, লাভা-ধস ও বিষাক্ত গ্যাসে এলাকা ছেয়ে যেতে পারে বলে ধারণা প্রকাশ করেছেন বিশেষজ্ঞরা।

ঝুঁকি বাড়ার আশঙ্কায় দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সতর্কবার্তা জারি করেছে ইন্দোনেশিয়ার ‘ভলক্যানোলেজি এন্ড জিওলজিক্যাল হ্যাজার্ড মিটিগেশন সেন্টার’।

শেয়ার