পেনসিলভেইনিয়ার ভোট নিয়ে আপিলেও হারলেন ট্রাম্প

সমাজের কথা ডেস্ক॥ যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ব্যাটলগ্রাউন্ড রাজ্য পেনসিলভেইনিয়াতে জো বাইডেনকে জয়ী ঘোষণা করা আটকাতে ডনাল্ড ট্রাম্প শিবিরের চেষ্টা খারিজ করে দিয়েছে দেশটির একটি কেন্দ্রীয় আপিল আদালত।

আদালতের তিন বিচারকের প্যানেল জানিয়েছে, ট্রাম্প শিবিরের করা মামলার কোনো ‘মেরিট’ই নেই। রিপাবলিকানরা ভোটে কারচুপি নিয়ে সুস্পষ্ট কোনো অভিযোগ বা এ সংক্রান্ত কোনো প্রমাণ হাজির করতে পারেনি বলেও মন্তব্য করেছে তারা।

বিবিসি জানিয়েছে, আপিল আদালতের এ রায়কে যুক্তরাষ্ট্রের ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের জন্য আরেকটি বড় ধাক্কা হিসেবে দেখা হচ্ছে। ৭৪ বছর বয়সী এ রিপাবলিকান নভেম্বরের ৩ তারিখের ভোটের ফল বদলে দেওয়ার চেষ্টা করছেন।

বৃহস্পতিবার তিনি ‘বাইডেনকে জয়ী ঘোষণা করা হলে হোয়াইট হাউস ছেড়ে দেবেন’ বলে ইঙ্গিত দিলেও পরদিনই আবার ‘ভোটে ব্যাপক জালিয়াতি’ হয়েছে মন্তব্য করে প্রমাণ ছাড়াই করে যাওয়া আগের অভিযোগের পথে ফিরে যান।

“তার প্রাপ্ত ৮ কোটি ভোট যে জালিয়াতি করে বা অবৈধভাবে পাওয়া নয়, তা প্রমাণ করতে পারলেই কেবল বাইডেন প্রেসিডেন্ট হিসেবে হোয়াইট হাউসে ঢুকতে পারবেন,” টুইটে বলেছেন ট্রাম্প।

রিপাবলিকান এ প্রেসিডেন্টের শিবির গত সপ্তাহেই পেনসিলভেইনিয়াতে ভোটের মামলায় বড় ধরনের ধাক্কা খেয়েছিল।

রাজ্যটিতে ডাকযোগে আসা লাখ লাখ ভোট বাতিলের দাবিতে মামলা করেছিল তারা। ফেডারেল আদালত ওই মামলা খারিজ করে দেওয়ার পর ট্রাম্প শিবির থার্ড সার্কিট কোর্ট অব আপিলসের দ্বারস্থ হয়।

এবার সেখানেও হারল তারা।

“মামলার ক্ষেত্রে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ ও এরপর প্রমাণ লাগে। এখানে কিছুই নেই,” বলেছেন আপিল আদালতের বিচারক স্টেফানোস বিবাস।

বিচারক হিসেবে বিবাসকে ট্রাম্পই মনোনয়ন দিয়েছিলেন।

নভেম্বরের নির্বাচনের পর থেকে রিপাবলিকান শিবির বেশ কয়েকটি রাজ্যে ভোট জালিয়াতি সংক্রান্ত একাধিক মামলা করলেও এখন পর্যন্ত বড় ধরনের কোনো সফলতা পায়নি।

শেয়ার