যশোর থেকে তরুণীকে অপহরণের পর মণিরামপুরে ধর্ষণের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোর থেকে এক তরুণীকে অপহরণের পর মণিরামপুরে ধর্ষণের অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশ। তিনদিন আগে সদর উপজেলার মন্ডলগাতি থেকে ওই তরুণীতে মণিরামপুরের এড়েন্দা নিয়ে যাওয়া হয়। বুধবার বিকেলে এই ধরনের অভিযোগ পেয়ে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে।

পুলিশের একটি সূত্রে জানা গেছে, ওই তরুণীর ভাষ্য অনুযায়ী, ‘সে মনিরামপুর উপজেলার এড়েন্দা গ্রামে নানাবাড়িতে বসবাস করে। কিন্তু সদর উপজেলার ভেকুটিয়া গ্রামের একটি বাড়িতে সে ঝিয়ের কাজ করতো। গত ২৩ নভেম্বর সন্ধ্যায় ভেকুটিয়ার ওই বাড়ি থেকে কাজের পাওনা টাকা নিয়ে সে নানাবাড়ি ফিরছিলো। পথিমধ্যে ম-লগাতি গ্রামে পৌঁছানোর পর ৪-৫টি মোটরসাইকেলে কয়েক যুবক তাকে অপহরণ করে। তাকে একটি মোটরসাইকেলে চালকের পেছনে তাকে বসানো হয় নেয়া হয়। এরপর তাকে চাঁচড়া ইউনিয়নের গোয়ালদাহ হয়ে মণিরামপুরের এড়েন্দা গ্রামে নিয়ে যায়। সেখানকার একটি স্থানে ৩ জন যুবক তাকে ধর্ষণ করে।’ তরুণীর দাবি, যারা তাকে অপহরণ করেছিলো তাদের সকলে তার পরিচিত।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পুলিশের একজন কর্মকর্তা বলেছেন, গত সোমবার সন্ধ্যায় ওই ঘটনার পর বুধবার বিকেলে তরুণী কোতোয়ালি মডেল থানায় সে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ করে। অভিযোগটি পুলিশ গুরুত্বের সাথে নিয়েছে। তারা তার অভিযোগটি তদন্ত করছেন।

 

শেয়ার