বিমানবাহিনীতে চাকরি করা একজনের সাথে জালিয়াতি করে বিয়ের অভিযোগ

 যশোর আদালতে নারীসহ ৫ জনের নামে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বিমানবাহিনীতে চাকরি করা একজনের সাথে বিয়ে করতে যশোরে এক নারী জালিয়াতি করে কাবিননামা তৈরি করেছে বলে আদালতে মামলা হয়েছে। রোববার সদর উপজেলার ছিলিমপুর গ্রামের আতাউর রহমান তার ছেলের সাথে এমন প্রতারণা করা হয়েছে দাবি করে আদালতে মামলা করেছেন। মামলায় এক নারীসহ ৫জনের আসামি করা হয়েছে। জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুদ্দীন হোসাইন অভিযোগটি গ্রহণ করে আদেশের জন্য রেখে দিয়েছেন। আসামিরা হলো, সদর উপজেলার ছিলুমপুর গ্রামের আব্দুস সাত্তারের মেয়ে স্বামী পরিত্যাক্তা ফাহিমা খাতুন, ধর্মতলা গ্রামের মোস্তাফা কামাল ও তার ছেলে জাবের হাসান, মেয়ে জুলেখা খাতুন এবং আরবপুর ইউনিয়নের নিকাহ রেজিস্ট্রার কাজী আব্দুল হামিদ।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, ছিলুমপুর গ্রামের আতাউর রহমানের ছেলে হুমায়ুন কবির বিমান বাহিনীতে চাকরি করেন। চাকরির আগে হুমায়ুন কবীর একই গ্রামের স্বামী পরিত্যাক্তা ফাহিমা খাতুনের বাড়ির পাশে প্রাইভেট পড়াতে যেতেন। এরপর থেকে ফাহিমা খাতুন বিভিন্ন সময়ে তাকে কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন। এতে রাজি না হওয়ায় হুমায়ুনের ক্ষতি করার ষড়যন্ত্র করে আসছিল ফাহিমা। গত বছরের ২৯ মার্চ হুমায়ুনকে ডেকে এনে আসামিরা আটক রেখে নীল কাগজে স্বাক্ষর করে নেয়। এ কাগজের স্বাক্ষর জাল করে পরবর্তীতে আসামিরা বিয়ের কাবিন ও স্ট্যাম্প তৈরি করে হুমায়ুন বিয়ে করেছেন বলে দাবি করেন ফাহিমা। কাবিনে বিয়ের তারিখের দিন হুমায়ুন তার কর্মস্থল ঢাকায় ছিলেন। আসামিরা পরিকল্পতিভাবে জালজালিয়াতের মাধ্যমে মিথ্যা কাবিননামা ও স্ট্যাম্প তৈরি করেছে বলে জানতে পারেন হুমায়ুনের পিতা। কেন বিষয়টি জালিয়াতির মাধ্যমে করা হলো গত ৬ নভেম্বর আসামিদের ডেকে জানতে চাওয়া হয়। এসময় তারা কিছু না বলে চলে যায়। এই বিষয়ে মামলা করতে গেলে থানা পুলিশ গ্রহণ না করায় আদালতে এই মামলা করা হয়েছে।

শেয়ার