চুপিসারে বাইডেন টিমকে সহায়তা করছে ট্রাম্প প্রশাসনের অনেকেই

সমাজের কথা ডেস্ক॥ যুক্তরাষ্ট্রের বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসনের বর্তমান এবং সাবেক অনেক কর্মকর্তাই চুপিসারে নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন টিমের সঙ্গে যোগাযোগ করে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিতে শুরু করেছেন।

বুধবার সিএনএন এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়ে বলেছে, নির্বাচনে ট্রাম্পের পরাজয় স্বীকার না করা এবং নতুন প্রেসিডেন্টকে সহায়তা করতে হোয়াইট হাউজ থেকে পদে পদে বাধার মুখে ট্রাম্পের ঘনিষ্ঠজনরাও যে হতাশ হয়ে পড়ছেন এ তারই লক্ষণ।

যুক্তরাষ্ট্রের জেনারেল সার্ভিসেস এডমিনিস্ট্রেশন এখনও নির্বাচনে বাইডেনের জয় মেনে নেয়নি এবং ক্ষমতা হস্তান্তরের আনুষ্ঠানিক প্রক্রিয়া শুরু করেনি। ফলে বাইডেন ও তার ট্রানজিশন টিম ফেডারেল এজেন্সিগুলোর সঙ্গে যোগাযোগ, নতুন প্রশাসনে কর্মকর্তা নিয়োগে প্রয়োজনীয় তহবিল এবং গোপন গোয়েন্দা তথ্য পাওয়া থেকেও বঞ্চিত।

এরই মধ্যে ট্রাম্প প্রশাসনের এক কর্মকর্তা বাইডেন টিমের সঙ্গে হোয়াইট হাউজের ভেতর থেকে কর্মকর্তাদের অনানুষ্ঠানিক যোগাযোগ হওয়ার কথা সিএনএন-কে জানিয়েছেন।

ওই কর্মকর্তা বলেন, “এতে আমাদের সমস্যায় পড়ার কিছু নেই। এটি শুধুই সহযোগিতা করার প্রস্তাব। তারা জানে আমরা কী বলতে চেয়েছি, আর আমরা কোনটা করতে বা বলতে পারব আর কোনটা পারব না।”

ট্রাম্প প্রশাসনের সাবেক এক কর্মকর্তা সিএনএন’কে বলেছেন, তারা বাইডেন টিমের সঙ্গে এই যোগাযোগকে দলীয় বিবেচনার ঊর্ধ্বে দেশের জন্য দায়িত্ব পালনের অংশ হিসেবেই দেখছেন।

দুই পক্ষের মধ্যে এই যোগাযোগ ক্ষমতা হস্তান্তর প্রক্রিয়ায় আনুষ্ঠানিক ব্রিফিংয়ের মতো বিস্তারিত কিছু না হলেও এর মধ্য দিয়ে হোয়াইট হাউসের দায়িত্ব নেওয়ার পর কোন কোন বিষয় নিয়ে কাজ করতে হতে পারে সে সম্পর্কে বাইডেনের ট্রানজিশন টিমের সদস্যরা কিছুটা ধারণা পাবেন, বলছেন কর্মকর্তারা।

কয়েকমাস আগে পদত্যাগ করা হোয়াইট হাউসের আরেক কর্মকর্তা বলেছেন, তিনি বাইডেন টিমের একজনের কাছে ইমেইল করে তাকে সহযোগিতা করার প্রস্তাব দিয়েছেন; ওই ব্যক্তি নতুন প্রশাসনে তার মতো একই পদে দায়িত্ব পেতে পারেন বলে মনে করছেন এই কর্মকর্তা।

বাইডেন টিমের এক ঊর্ধ্বতন উপদেষ্টাও কর্মকর্তাদের সঙ্গে এমন যোগাযোগ হওয়ার কথা স্বীকার করেছেন। তবে এ ব্যাপারে কোনও মন্তব্য করতে রাজি হননি।

 

 

শেয়ার