জাপানে ভালুক তাড়াচ্ছে রোবট নেকড়ে

সমাজের কথা ডেস্ক॥ জাপানি এক শহর নিজেদের পল্লী অঞ্চলে ভালুক তাড়াতে নেকড়ে সদৃশ রোবট ব্যবহার করছে। হুট করে ভালুকের আনাগোনা বেড়ে যাওয়ায় অভিনব এ ব্যবস্থা নিয়েছে তারা।

হোক্কাইদোর উত্তর পূর্ব দ্বীপের শহর তাকিকাওয়াতে ব্যবহৃত হচ্ছে রোবট নেকড়ে। ওই অঞ্চলে সেপ্টেম্বরে হুট করে লোকালয়ে আসা শুরু করে ভালুক। শহর কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, রোবট নেকড়ে ব্যবহারের পর থেকে ভালুকের উপদ্রব কমেছে।

জাপানের রাষ্ট্রীয় সম্প্রচার মাধ্যম এনএইচকে জানিয়েছে, পশ্চিম ও উত্তর জাপানে গত পাঁচ বছরের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ভালুক চোখে পড়েছে এবার। শুধু এ বছরেই ডজনখানেক আক্রমণের ঘটনা ঘটেছে। প্রাণঘাতী আক্রমণ হয়েছে দুটি। বাধ্য হয়ে দেশটির সরকার গত মাসে আলোচনায় বসেছিল।

জাপানের রোবট নেকড়ের নাম ‘মনস্টার উলফ’। রোবটটির রোমশ আকৃতির শরীরে চারটি পা রয়েছে। আরও রয়েছে কেশর এবং হিংস্র দেখাবে এমন দুটি লাল চোখ। রোবটটির মোশন ডিটেক্টর সচল হয়ে গেলে এটি মাথা ঘুরায়, আলো চমকায়, ৬০টির মতো ভিন্ন আওয়াজ করতে পারে। এর মধ্যে নেকড়ে ডাক থেকে শুরু করে যান্ত্রিক নানাবিধ আওয়াজ রয়েছে।

রোবট নেকড়েটি তৈরি করেছেন ওহতা সেইকি। ২০১৮ সাল থেকে ৭০ ইউনিট রোবট তৈরি করেছে প্রতিষ্ঠানটি। প্রায় একশ’ বছর আগেই জাপান থেকে নেকড়ের প্রজাতি বিলুপ্ত হয়ে গেছে। দেশটির কেন্দ্রীয় ও উত্তর দ্বীপের দিকে দেখা মিলত জাপানি নেকড়ের।

তাকিকাওয়া শহর কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, নভেম্বরে শীত নিদ্রায় যাওয়ার আগে খাবারের সন্ধানে আরও সক্রিয় ও হিংস্র হয়ে উঠেছে ভালুকগুলো। স্থানীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, এ বছর বন্য ভূমিতে অ্যাকর্ন ও বাদাম কমে যাওয়ায় ভালুক লোকালয়ে চলে আসছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

 

শেয়ার