যশোর উন্নয়নে অবদান রাখা তরুণনেতা এমপি শাহীন চাকলাদারের নাগরিক সংবর্ধনা শনিবার

জাহিদ হাসান
যশোরের মাটি ও মানুষের নেতা; এ জেলার উন্নয়নে অবদান রাখা তরুণনেতা যশোর-৬ (কেশবপুর) সংসদীয় আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদারকে আগামীকাল শনিবার নাগরিক সংবর্ধনা দিতে যাচ্ছে যশোর নাগরিক কমিটি। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যশোর শহর ছাড়াও আশপাশের এলাকা থেকে হাজার হাজার মানুষ অংশ নিবে। তাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে অনুষ্ঠান সফল করার লক্ষ্যে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে নাগরিক সংবর্ধনার আহ্বায়ক কমিটি ও আহ্বায়ক কমিটির উপকমিটি।

সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, যশোর উন্নয়ন ও সেবামূলক কর্মকাণ্ডে অবদান রাখায় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জাতীয় সংসদ সদস্য শাহীন চাকলাদারকে এ নাগরিক সংবর্ধনা দেওয়া হবে। আগামী ৩১ অক্টোবর শনিবার যশোরের ঐতিহাসিক টাউন হল ময়দানে বিকাল ৩ টায় তাকে নাগরিক সংবর্ধনা দেওয়া হবে। আয়োজকরা বলছেন, যশোরের রাজনীতিতে এমপি শাহীন চাকলাদারের অবদান অনেক। সংসদ সদস্য না হলেও অতীতে জনগণের সেবা করেছেন শাহীন চাকলাদার। বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠানসহ সামাজিক, সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে ও সমাজ বির্নিমাণে তিনি কাজ করেছেন। মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য তিনি জনগণের পাশে দাঁড়িয়েছেন। মহামারী করোনার মধ্যে অনেক রাজনীতিবিদ বাইরে না বের হলেও তিনি করোনার সম্মুখযোদ্ধা হিসেবে কাজ করেছেন। করোনার ভয়াবহতার মধ্যেও যশোর জেলার আট উপজেলায় ঘরবন্দি অসহায় কর্মহীন মানুষের মাঝে তিনি বিপুল পরিমাণে ত্রাণসামগ্রী ও স্বাস্থ্যসামগ্রী বিতরণ করেছেন। করোনার মধ্যে যশোরের স্বাস্থ্যব্যবস্থাকে উন্নত করতে তিনি নিজ উদ্যোগে যশোর জেনারেল হাসপাতালে পোর্টেবল এক্সরে ও ইসিজি মেশিন প্রদান করেন। করোনার প্রাদুর্ভাব রোধে যশোর জেলার আটটি উপজেলার ৯৩টি ইউনিয়নের সব সড়কে জীবাণুনাশক স্প্রে করিয়েছিলেন তিনি। শাহীন চাকলাদার বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে নেতৃত্ব দিয়ে চলেছেন। যশোরের উন্নয়ন ও সম্ভাবনাকে এগিয়ে নিতে আগামীতেও জাতীয় সংসদে যশোরের অভিভাবক হিসেবে বিভিন্ন দাবি তুলবেন। শাহীন চাকলাদার যশোরের ছেলে। যশোর শহরেই তার বেড়া উঠা। যশোরের জনগণের পাশে থেকে তিনি অগ্রণী ভূমিকা পালন করছেন। সেকারণে যশোরের নাগরিকসমাজ এই তরুণ সমাজসেবী রাজনীতিবিদকে সংবর্ধনা দেওয়া উচিত বলে মনে করছে। যশোরের উন্নয়ন ও অবহেলিত জনগণের পাশে দাঁড়ানোর অনুপ্রেরণা যোগাবে বলেই যশোরের নাগরিকসমাজ তাকে এ সংবর্ধনা দিচ্ছে বলে জানিয়েছেন নাগরিক কমিটির নেতৃবৃন্দ।

যশোর নাগরিক কমিটি সূত্র মতে, আগামী ৩১ অক্টোরব শনিবার যশোর টাউন হল ময়দানে এমপি শাহীন চাকলাদারের সংবর্ধনার ব্যাপারে বিশাল প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। এদিন বিকাল ৩ টা থেকে রওশন আলী মঞ্চে অতিথিদের আগমনী গানের মধ্য দিয়ে শুরু হবে মূল অনুষ্ঠান। এরপরেই সমবেত কণ্ঠে জাতীয় সংগীত, বঙ্গবন্ধু স্মরণে বঙ্গবন্ধুর উপর জীবনী পাঠ, গান ও দেশাত্মবোধক গান পরিবেশিত হবে। এরপর নাগরিক কমিটির উদ্যোগে যশোরের এই তরুণ সমাজসেবক শাহীন চাকলাদারকে যশোরের ঐতিহ্যবাহী খেজুরগাছ সম্বলিত ক্রেস্ট সম্মাননা প্রদান করা হবে। এর পরেই যশোরের বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন, ব্যবসায়ী প্রতিনিধি, পৌরসভা ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরাও নিজ নিজ উদ্যোগে সম্মাননা স্মারক ও ফুলেল শুভেচ্ছা জানাবেন। সম্মাননা অনুষ্ঠান শেষে যশোরের প্রায় ১০ টিরও বেশি সাংস্কৃতিক সংগঠনের শিল্পীরা ‘সাংস্কৃতিক সন্ধ্যায়’ সংগীত ও নৃত্য পরিবেশন করবেন। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বিভিন্ন প্রকৌশলী, চিকিৎসক, কৃষিবিদ, ডিপ্লোমা প্রকৌশলী, আইনজীবী, সাংবাদিক, শিক্ষক, ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব, সাংস্কৃতিককর্মী, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্যপরিষদ, পূজা উদযাপন পরিষদ, নারী সংগঠন এবং মুক্তিযোদ্ধা সংসদের নেতৃবৃন্দকে যোগ দেওয়ার কথা রয়েছে।
নাগরিক সংবর্ধনা প্রস্তুতি সম্পর্কে জানতে চাইলে কমিটির সদস্য সচিব ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব হারুন-অর-রশিদ জানান, যশোরের বিভিন্ন উন্নয়নে অবদান ও উন্নয়নমুখী উদ্যোগী তরুণনেতা হওয়ায় স্বীকৃতিস্বরূপ তাকে এই সংবর্ধনা দেয়া হচ্ছে। যশোরের বিভিন্ন শ্রেণি- পেশার মানুষের মতামতের ভিত্তিতেই যশোরের আওয়ামী লীগের রাজনীতির অভিভাবক শাহীন চাকলাদার এমপিকে এ নাগরিক সংবর্ধনা দেওয়া হবে। ইতোমধ্যে প্রস্তুতি সভায় সবার সম্মতিক্রমে শিক্ষাবিদ অধ্যক্ষ সুলতান আহমদকে আহ্বায়ক করে ১০১ সদস্য বিশিষ্ট নাগরিক সংবর্ধনা কমিটি গঠন করা হয়েছে। সংবর্ধনাকে ঘিরে বিভিন্ন প্রচার-প্রচারণায় যশোর শহরে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। এটি নাগরিক কমিটির সংবর্ধনা হলেও যশোরের বিভিন্ন রাজনৈতিকসহ বিভিন্ন শ্রেণি- পেশার লোক ও সংগঠন অংশ নেবে।

শেয়ার