প্রথম দিনের পরিচয়েই ‘কথিত বিয়ে’ এক রাতের সংসারে যশোরে যুবকের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা করলো দিনাজপুরের তরুণী

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোরে আসার প্রথম দিনেই মানিক নামে এক যুবকের সাথে পরিচয় হয় দিনাজপুরের এক তরুণীর। সেদিনই তারা আবার কথিত বিয়ের পিড়িঁতে বসেন। এক রাতের সংসার হলেও স্বামী মানিকের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেছেন ওই তরুণী। গতকাল মঙ্গলবার এই ঘটনার মামলায় পুলিশ আসামি মানিককে আটক করে কারাগারে পাঠিয়েছে। ওই তরুণী গত ২২ অক্টোবর যশোরে আসার পরদিন ২৩ অক্টোবর তাদের বিয়ে হয়।
মামলায় তরুণী উল্লেখ করেছেন, তার বাড়ি দিনাজপুরের বিরল উপজেলার খোসালডাঙ্গা গ্রামের বাসিন্দা। তিনি গত ২২ অক্টোবর যশোর শহরের বারান্দীপাড়ায় এক বান্ধবীর বাসায় বেড়াতে আসেন। পরদিন ২৩ অক্টোবর বান্ধবীর চাচাতো ভাই মানিকের সাথে পরিচয় হয় তরুণীর। সেদিনই তরুণীকে মানিক ও তার মা-বাবাসহ একটি অফিসে নিয়ে একটি কাগজে স্বাক্ষর করান। স্বামী-স্ত্রী হিসেবে ওইদিন রাত ১০টার পর থেকে শারীরিক সম্পর্ক করেন। পরদিন সকালে তরুণীকে গালিগালাজ করে মানিক ও তার পরিবার বাসা থেকে বের করে দেন। কৌশলে ওই তরুণী জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ার নামে একটি সংস্থাকে ফোন করেন। জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ার তাকে উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। এই ঘটনায় ২৬ অক্টোবর কোতোয়ালি মডেল থানায় ধর্ষণের অভিযোগ করেন ওই তরুণী। মামলা রেকর্ডের পর গতকাল মঙ্গলবার মানিককে আটকের পর জেলহাজতে প্রেরণ করেছে পুলিশ। মানিক শহরের বারান্দীপাড়া বউ বাজার এলাকার আনোয়ার হোসেনের ছেলে।

 

শেয়ার