যশোরের ৮ উপজেলায় পাচারের শিকার ১০২ নারীকে ব্র্যাকের আর্থিক সহযোগিতা

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ পাচারের শিকার যশোরের অনেক নারী নিঃস্ব হয়ে দেশে ফিরে আসার পর জীবনটাকে নতুন করে সাজানোর চেষ্টা করছিলেন। কিন্তু করোনা ভাইরাসের কারণে তা সম্ভব হয়ে উঠছিলো না। এই সময় তাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে বেসরকারি সংস্থা ব্র্যাক। যশোর জেলার ৮টি উপজেলার মানব পাচারের শিকার ১০২ জন নারীকে ব্র্যাক আর্থিকভাবে সহযোগিতা করেছে। ব্র্যাক মাইগ্রেশন প্রোগ্রামের জেলা ব্যবস্থাপক দেবানন্দ মন্ডল জানান, যশোরের ৮টি উপজেলায় মানব পাচারের শিকার ১০২ নারীকে ২ লক্ষ ৪ হাজার টাকা জরুরি সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। ইতোমধ্যে প্রায় সবাই টাকা পেয়ে গেছেন। বিপদকালীন এই উদ্যোগ নেওয়ার জন্য নির্বাচিত সকল সেবাগ্রহীতা ব্র্যাককে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। তিনি আরও জানান, দাতা সংস্থা চিলড্রেন ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড ফাউন্ডেশনের আর্থিক সহযোগিতায় এবং ব্র্যাক ইউকের কারিগরি সহায়তায় ব্র্যাক ‘ডিসরাপটিং ক্রস বর্ডার ট্রাফিকিং নেটওয়ার্ক ইন যশোর, বাংলাদেশ’ শিরোনামে একটি পাইলট প্রকল্পের মাধ্যমে এই সহায়তা প্রদান করছে। প্রকল্পটি ৪ পি মডেল (প্রিভেনশন, প্রোটেকশন, প্রোসিকিউশন ও পার্টনারশিপ) অনুসরণ করে কাজ করছে। সীমান্তে পাচার রোধ করার ক্ষেত্রে পরীক্ষামূলক এ প্রকল্পের মাধ্যমে যশোর জেলার ৮টি উপজেলায় বিভিন্ন ধরনের সচেতনতামূলক কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। এসব কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে সচেতনতা সৃষ্টির পাশাপাশি ভুক্তভোগীর জন্য মনোসামাজিক কাউন্সিলিং সেবা, রেফারেল সহায়তা ও অর্থনৈতিক সহায়তা প্রদান করার মাধ্যমে তাদের সাবলম্বী করে তোলার চেষ্টা করা হবে।

শেয়ার