যশোরে একজনকে অপহরণের পর গুম করার অভিযোগে আদালতে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোর সদর উপজেলার লেবুতলা গ্রামের আব্দুস সাত্তারকে অপহরণের পর গুম করার অভিযোগে আদালতে মামলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার আব্দুস সাত্তারের স্ত্রী হাসিনা খাতুন বাদী হয়ে ৫ জনের বিরুদ্ধে যশোর জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এই মামলা করেন। বিচারক সাইফুদ্দীন হোসাইন মামলাটি আমলে নিয়ে তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের জন্য কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে আদেশ দিয়েছেন। একই সাথে আগামী ৭ ডিসেম্বর এই মামলার পরবর্তী দিন ধার্য্য করা হয়েছে। আসামিরা হলো, লেবুতলা গ্রামের মৃত আব্দুল গফুর বিশ্বাসের দুই ছেলে শহিদুল ইসলাম ও মাহাবুব হোসেন, মৃত বিলাত আলী বিশ্বাসের ছেলে আব্দুল ওহাব, মৃত হাতেম আলী বিশ্বাসের ছেলে শামিনুর রহমান এবং আব্দুল ওহাব বিশ্বাসের ছেলে আশানুর রহমান। বাদী হাসিনা খাতুনের অভিযোগে উল্লেখ করেছেন, আসামিরা বিভিন্ন ধরনের অপরাধী চক্রের সক্রিয় সদস্য। আসামি আশানুর রহমান ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালায়। গত ৪ অক্টোবর ভোর সাড়ে ৪টার দিকে বাদীর স্বামী আব্দুস সাত্তার ফজরের নামাজ আদায় করতে বাড়ি থেকে মসজিদের উদ্দেশ্যে রওনা হন। এরপর আর তিনি বাড়ি ফিরে আসেননি। অনেক খোঁজাখুঁজি করে তাকে কোথাও না পেয়ে এ ঘটনায় ৫ অক্টোবর কোতোয়ালি মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়। এরপর বাদিনী লোকজনের কাছ থেকে জানতে পারেন যে, গত ৪ অক্টোবর আব্দুস সাত্তারকে আসামি শহিদুল ইসলাম ও আশানুর রহমান একটি মোটরসাইকেলে করে যশোর শহরের দিকে নিয়ে গেছেন। তাদের সাথে এ সময় অপর একটি মোটরসাইকেলে আসামি মাহাবুব হোসেন ও শামিনুর রহমান একই দিকে যান। ফলে বাদিনী আশঙ্কা করছেন, তার স্বামীকে অপহরণের পর খুন ও গুম করা হতে পারে।

শেয়ার