নির্বাচিত হলে যশোর সদর উপজেলাকে স্মার্ট উপজেলা হিসেবে গড়ে তুলবো

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ আসন্ন যশোর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী নুরজাহান ইসলাম নীরা সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করেছেন। আসন্ন সদর উপজেলার নির্বাচন নিয়ে সোমবার দুপুরে প্রেসক্লাব যশোরে তিনি এই মতবিনিময় করেন। মতবিনিময় সভায় নৌকা প্রতীকের প্রার্থী নুরজাহান ইসলাম নীরা বলেন, নির্বাচিত হলে যশোর সদর উপজেলাকে আমি একটি স্মার্ট উপজেলা হিসেবে গড়ে তুলবো। আগামী ২০ অক্টোবর শূন্য পদে নির্বাচনে জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে নৌকা উপহার দিয়েছেন। আর সেই নৌকা বিজয়ী করতে আওয়ামী লীগের প্রতিটি নেতাকর্মীকে সাথে নিয়ে আমরা প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছি। এক প্রশ্নের জবাবে মতবিনিময় সভায় জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট আলী রায়হান বলেন, বিএনপি দীর্ঘদিন রাজনীতির মাঠে নেই। সেই কারণে নির্বাচনী মাঠেও বিএনপির কর্মী-সমার্থক সংকটে রয়েছে। প্রতিপক্ষ বিএনপি কেবল নালিশ জানায়, তাদের ভোট দিতে দেওয়া হয় না। প্রকৃতপক্ষে তারা ভোটের মাঠেই থাকে না। বর্তমান সরকার মানুষের কর্মসংস্থানে ব্যাপক কাজ করছে। আশা করা হচ্ছে, নির্বাচনে ভোটাররা স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশ নেবেন। নৌকার গণজোয়ার সৃষ্টির লক্ষে ও নৌকা প্রতীকের পক্ষে নির্বাচনের ব্যাপারে জেলা আওয়ামী লীগের মধ্যে কোনও বিভেদ নেই। সকলেই ঐক্যবদ্ধভাবে তাকে বিজয়ী করতে আমরা কাজ করছি।
মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাইফুজ্জামান পিকুল, যশোর পৌরসভার মেয়র জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টু, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তফা ফরিদ আহমেদ চৌধুরী, নুর জাহান ইসলাম নীরার প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট অ্যাডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান মুকুল, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান মিন্টু, পৌর কাউন্সিলর মোকসিমুল বারী অপু, জেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি মঞ্জুন্নাহার নাজনীন সোনালীসহ ছাত্রলীগ, যুবলীগের নেতাকর্মীরা।
উল্লেখ্য, যশোর সদর উপজেলার তৎকালীন চেয়ারম্যান শাহীন চাকলাদার পদত্যাগ করে সংসদ নির্বাচনে যশোর-৬ আসন শূন্য আসনে অংশ নেন। এ কারণে চলতি বছরের ১৪ ফেব্রুয়ারি যশোর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের পদ শূন্য হয়। এ শূন্য পদে ভোট অনুষ্ঠিত হবে ২০ অক্টোবর।

শেয়ার