থাইল্যান্ডে বাস-ট্রেন সংঘর্ষে নিহত ২০

সমাজের কথা ডেস্ক॥ থাইল্যান্ডে বৌদ্ধ মন্দিরগামী একটি বাসের সঙ্গে ট্রেনের সংঘর্ষে অন্তত ২০ জন নিহত ও ৩০ জন আহত হয়েছে বলে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

রাজধানী ব্যাংককের ৬৩ কিলোমিটার পূর্বে ক্লোং কোয়ায়েং ক্ল্যান রেল স্টেশনের কাছে রোববার স্থানীয় সময় সকাল ৮টা ৫ মিনিটের দিকে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে বলে চাচোয়েংসাও প্রদেশের গভর্নর মৈত্রী ত্রিতিলানন জানিয়েছেন।

৬০ জনের মতো কারখানা শ্রমিককে পরিবহন করা বাসটি সামুত প্রাকান প্রদেশ থেকে চাচোয়েংসাওয়ের একটি বৌদ্ধ মন্দিরের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাচ্ছিল। পথে একটি ক্রসিংয়ে বাসটি রেললাইন পার হওয়ার সময় থাইল্যান্ডের পূর্বাঞ্চলীয় এলাকা থেকে রাজধানী ব্যাংককের পথে থাকা মালবাহী একটি ট্রেনের সঙ্গে ধাক্কা খায়।

গণমাধ্যমে আসা বিভিন্ন ছবিতে দুর্ঘটনায় পড়া বাসটিকে রেললাইনের উপর একপাশে কাত হয়ে থাকতে এবং আশপাশে এর ধ্বংসাবশেষ পড়ে থাকতে দেখা গেছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

ছবিতে ট্রেনটিকেও দুর্ঘটনাস্থলে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে।

চাচোয়েংসাওয়ের গভর্নর মৈত্রী জানান, ওই ক্রসিংয়ে অ্যালার্ম থাকলেও ট্রেন চলার সময় যানবাহন আটকানোর কোনো প্রতিবন্ধক ছিল না। ভবিষ্যতে এ ধরনের দুর্ঘটনা যেন না হয়, তা নিশ্চিত করতে স্পিড বাম্প এবং প্রতিবন্ধক দেওয়ার পাশাপাশি ট্রেন আসছে কিনা তা সহজে দেখতে ক্রসিংয়ের কাছাকাছি থাকা গাছ কাটারও প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি।

“এই ঘটনা একটি শিক্ষা হয়ে থাকুক। বিপজ্জনক জায়গাগুলোর উন্নতিসাধন করবো আমরা, যেন এ ধরনের দুর্ঘটনা আর না হয়,” এক বিবৃতিতে বলেছেন এ গভর্নর।

শেয়ার