অব্যাহত ধর্ষণ ও বিচারহীনতার বিরুদ্ধে উদীচী যশোরের সাংস্কৃতিক সমাবেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ পাহাড়ে সমতলে অব্যাহত ধর্ষণ ও বিচারহীনতা প্রতিরোধে উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী যশোর শাখার উদ্যোগে সাংস্কৃতিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে শুক্রবার বিকেলে শহরের নেতাজী সুভাষ চন্দ্র সড়কে ঘণ্টাব্যাপি এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশ থেকে ধর্ষকদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানানো হয়।
এতে সভাপতিত্ব করেন উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী যশোর শাখার সহসভাপতি অ্যাড. আমিনুর রহমান হিরু। সূচনা বক্তব্য দেন উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী যশোর শাখার সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদুর রহমান খান বিপ্লব।
সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন, প্রবীণ সাংবাদিক মুক্তিযোদ্ধা রুকুনউদ্দৌলাহ্, জেলা সিপিবির সভাপতি অ্যাড. আবুল হোসেন, উলাসী সৃজনী সংঘের নির্বাহী পরিচালক খন্দকার আজিজুল হক মণি, জেলা সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি তরিকুল ইসলাম তারু, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. সুব্রত ম-ল, জেলা মহিলা পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক ফারদিনা রহমান এ্যানী, জনউদ্যোগের বিথীকা সরকার, ডা, আব্দুর রাজ্জাক মিউনিসিপ্যাল কলেজের শিক্ষক নওশাদ বানু প্রমুখ।
আরও বক্তব্য দেন, উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী যশোর শাখার সাবেক সভাপতি সোমেশ মুখার্জী ও বর্তমান সহসভাপতি রজিবুল ইসলাম টিলন। সঞ্চালনা করেন সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী শাহেদ নেওয়াজ।
সমাবেশে বক্তারা বলেন, কেবলমাত্র জৈবিক তাড়না থেকে নয় বরং ক্ষমতা, আধিপত্য এবং দমন-পীড়নের কুৎসিত বহিঃপ্রকাশ ঘটছে ধর্ষণের মাধ্যমে। নেতৃবৃন্দ বলেন, পাহাড়ে ও সমতলে দরিদ্র ও অসহায় নারীর প্রতি যে বর্বরতা ঘটে চলেছে তা আর সহ্য করা যায়না।
ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদ-ের বিধান রেখে আইন প্রণয়নের উদ্যোগ গ্রহণ করা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ দিয়ে বক্তারা আরো বলেন, দ্রুত বিচারের মাধ্যমে ধর্ষকদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে।
সমাবেশে উদীচীর নেতৃবৃন্দ মানবিক সংস্কৃতির বিকাশ এবং এই অসুস্থ ও আধিপত্যবাদী দুর্বৃত্তায়নের বিরুদ্ধে গণপ্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানান।

শেয়ার