নির্বাচনী প্রচারণায় ব্যবহৃত মাইক-সেট ভাঙচুর, লুটের প্রতিবাদে ধর্মঘট পালিত

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনে প্রচার-প্রচারণার কাজে ব্যবহৃত মাইক-সেট ভাঙচুর, লুটের প্রতিবাদে ও দোষী ব্যক্তিদের আটকের দাবিতে অর্ধদিবস ধর্মঘটসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছেন জেলা লাইট-মাইক ব্যবসায়ীরা। বুধবার সকাল ১০ টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত শহরের অর্ধশতাধিক লাইট-মাইক ব্যবসায়ীরা এই প্রতিবাদে কর্মসূচি পালন করেছে। এর পরে জেলা লাইট-মাইক মালিক ও শ্রমিক কল্যাণ সমিতির ব্যানারে মানববন্ধন করেন নেতৃবৃন্দ। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, লাইট-মাইক ব্যবসায়ীরা কোন দল বা ধর্মের না। যখন যে দলের বা ব্যক্তির প্রয়োজন তখনই তাদের সেবা দিয়ে যাচ্ছে। কিছু রাজনৈতিক দলের ভিতরে ঘাপটি মেরে থাকা সন্ত্রাসীরা আসন্ন নির্বাচনে প্রার্থীদের কাছে ভাড়া দেওয়া মাইক-সেট ভাঙচুর করছে। এসকল সন্ত্রাসীদের বের করে আইনের আওতায় আনারও দাবি তোলেন নেতৃবৃন্দ। এছাড়া আসন্ন নির্বাচন উপলক্ষে দুই প্রার্থীর কাছে ভাড়া দেওয়া মাইক-সেট যাতে সুষ্ঠভাবে প্রচারণা চালাতে পারে সে জন্য প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করছেন। মানবন্ধন শেষে নেতৃবৃন্দ একই দাবিতে জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেন।
সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, যশোর জেলা লাইট-মাইক মালিক ও শ্রমিক কল্যাণ সমিতির সভাপতি গোলক চন্দ্র দত্ত, সহ-সভাপতি ইদ্রিস আলী, সাধারণ সম্পাদক মুরাদ হোসেন, আইন বিষয়ক সম্পাদক মাছুম পারভেজ মিন্টু, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন দুলু প্রমুখ।

শেয়ার