যশোরে ডাকাতি প্রচেষ্টার অভিযোগে চারজন আটক, অস্ত্র-গুলি উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোরে ডাকাতি প্রচেষ্টার অভিযোগে চারজনকে আটক করেছে পুলিশ। এসময় তাদের কাছ থেকে তিনটি আগ্নেয়াস্ত্র, গুলি, দা, চাপাতি ও ছোরাসহ বেশ কয়েকটি ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। ৩০ সেপ্টেম্বর রাত ১১টার দিকে যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের মালঞ্চি এমবিবিআই ইট ভাটার সামনে থেকে তাদের আটক করা হয়। এঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলা করেছে। আটককৃতদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন জেলা ও থানায় হত্যা, অস্ত্র, ডাকাতি, বোমা বিস্ফোরণ ও মাদকসহ অন্তত দুই ডজন মামলা রয়েছে। আটককৃতরা হলো, শহরের চাঁচড়া রায়পাড়া তৈয়ব আলীর ছেলে শীর্ষ সন্ত্রাসী ভাইপো রাকিবের সহযোগী সাব্বির হোসেন, বারান্দী মোল্যাপাড়া ইউনুচের বাড়ির ভাড়াটিয়া নজরুল ইসলামের ছেলে রাকিব ইসলাম, লাল মিয়ার ছেলে নাসির উদ্দিন ও সদর উপজেলার লেবুতলা গ্রামের দক্ষিণপাড়ার আব্দুস সাত্তার গাজীর ছেলে সোহেল রানা।
চাঁচড়া ফাঁড়ি পুলিশের এসআই মাসুদুর রহমান বলেছেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারেন ৩০ সেপ্টেম্বর রাত ১১ টার দিকে যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের মালঞ্চি এমবিবিআই ইট ভাটার সামনে ডাকাতির চেষ্টা করছে একদল দুর্বৃত্ত। এসময় সেখানে অভিযান চালিয়ে ওই চারজনকে আটক করা হয়। আটকের সময় সাব্বির ও নাসির দৌড়ে পালানোর সময় পায়ে আঘাত লেগে আহত হয়। এরপর আটক সোহেল রানার কোমরে থাকা একটি ওয়ানস্যুটারগান, সাব্বিরের কোমরে থাকা একটি সার্টারগান ও রাকিবের কোমরে থাকা একটি পাইপগান উদ্ধার করা হয়। এছাড়া অস্ত্রের সাথে ৬ রাউন্ড গুলি, একটি ছোরা, দুইটি দা ও একটি চাপাতি উদ্ধার করা হয়। চাঁচড়ার স্থানীয়রা জানিয়েছে, চিহ্নিত সন্ত্রাসী ভাইপো রাকিবের একান্ত সহযোগী সাব্বির। তার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি, অস্ত্র, ডাকাতি, বোমা বিস্ফোরণসহ অর্ধডজন মামলা রয়েছে।

শেয়ার