‘ভারতীয়দের রসবোধ কম,’ গাভাস্কারের পাশে দাঁড়িয়ে ফারুক

সমাজের কথা ডেস্ক॥ সুনিল গাভাস্কারের পরিস্থিতি বেশ ভালো করেই বুঝতে পারছেন ফারুক ইঞ্জিনিয়ার। ভারতের সাবেক এই কিপার-ব্যাটসম্যান নিজেও একবার পড়েছিলেন এই বিপাকে। এবার দাঁড়ালেন এক সময়ের সতীর্থের পাশে। তার মতে, মজার ছলেই বিরাট কোহলিকে নিয়ে বলার সময় আনুশকা শর্মাকে ক্রিকেটে টেনে এনেছিলেন গাভাস্কার।
আইপিএলে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিপক্ষে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের বৃহস্পতিবারের ম্যাচে কোহলির অনুশীলনের ঘাটতি নিয়ে আকাশ চোপড়ার সঙ্গে কথা বলছিলেন গাভাস্কার। লকডাউনে ভারতীয় অধিনায়কের কেবল স্ত্রী আনুশকার বোলিংয়ের বিপক্ষে ব্যাটিং অনুশীলনের সুযোগ ছিল, এমন মন্তব্য করেন তিনি। সে সময়ের ৩৪ সেকেন্ডের একটি ক্লিপ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

যা নিয়ে শুরু হয় আলোচনা-সমালোচনা। এমন মন্তব্যে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া প্রকাশ করেন আনুশকাও। পরে ভারতীয় ব্যাটিং কিংবদন্তি গাভাস্কার নিজের অবস্থান পরিষ্কার করেন। জানান, তার কথাকে অন্যভাবে নেওয়া হয়েছে। ফারুক মনে করেন, ভারতীয়রা রসকষহীন বলেই জল এতো দূর গড়িয়েছে।

“আমাদের, ভারতীয়দের মধ্যে সেন্স অব হিউমারে ঘাটতি রয়েছে। সুনিল যদি সত্যিই আনুশকা শর্মা এবং বিরাট কোহলি সম্পর্কে এমন কথা বলে থাকে, তাহলে সেটা অবশ্যই হাস্যরসের সুরেই বলেছে, খারাপ বা অবমাননা করে নয়।”

২০১৯ বিশ্বকাপ চলাকালে ভারতীয় নির্বাচকদের আনুশকাকে চায়ের কাপ পৌঁছে দিতে দেখেছেন বলে সে সময় মন্তব্য করেন ফারুক। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এনিয়ে তখন চলে নানা আলোচনা-সমালোচনা। বলিউড অভিনেত্রীও এমন মন্তব্য নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন।
ষাট-সত্তর দশকে ভারতের হয়ে খেলা কিপার-ব্যাটসম্যান ফারুক জানান, সেটা কেবলই ছিল তার রসিকতা। যার ভিন্ন ব্যাখ্যা করা হয়েছে। গাভাস্কারের ক্ষেত্রেও তেমনই হয়েছে বলে মনে করেন তিনি।

“সুনিলকে ভালোভাবে জানার কারণে আমি নিশ্চিত, মজা করেই এটা বলেছে। এমনকি আমার ক্ষেত্রেও লোকে এটাকে অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছিল, এর ফলে আনুশকাকে তার বক্তব্য দিতে হয়েছিল।”

শেয়ার