উপকূলীয় এলাকায় টেকসই বেঁড়িবাধ নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে

সাতক্ষীরায় জনপ্রশাসন সচিব শেখ ইউসুফ হারুন

আব্দুল জলিল, সাতক্ষীরা ॥ সাতক্ষীরার উপকুলীয় উপজেলা আশাশুনিতে বন্যা প্রবণ ও নদী ভাঙ্গন এলাকায় আশ্রায়কেন্দ্র নির্মাণ র্শীষক প্রকল্পের আওতায় দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদের পিতার নামকরণে প্রতিষ্ঠিত মৌলভী আব্দুল লতিফ কলেজ বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করা হয়েছে।
আশাশুনি উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে খাজরা ইউনিয়নের গদাইপুর গ্রামে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এই নির্মণন কাজের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন করেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব শেখ ইউসুফ হারুন। দুর্যোগ ব্যবস্থপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় এই নির্মাণ কাজের ব্যয় ধরা হয়েছে ৩ কোটি ৪৫ লাখ টাকা।
জনপ্রশাসন সচিব এই সময় বলেন, উপকুলীয় এলাকায় টেকসই বেঁড়িবাধ নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। আশাশুনির প্রতাপনগরের ভাঙ্গন কবলিত এলাকা ঘুরে দেখেছি। কিছু ছোট খাট ভাঙ্গন নির্মাণ কাজ স্থানীয় ও পাউবো’র উদ্যোগে করা হয়েছে। বড় ভাঙ্গনগুলোর দায়িত্ব সেনাবাহিনীর উপর দেয়া হয়েছিল। কিন্তু তারা সময় চেয়েছেন। এডিবির অর্থ দিয়ে নির্মাণ কাজ সম্ভব নয়। এজন্য বড় আকারের বাজেট করে উপকুলীয় এলাকার টেকসই বেঁড়িবাঁধ নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। সাতক্ষীরা থেকে পটুয়াখালী পর্যন্ত টেকসই বেঁড়িবাধ নির্মাণ কাজের জন্য সাড়ে চার হাজার কোটি টাকার প্রজেক্ট হাতে নেয়া হয়েছে।
ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন শেষে আনুলিয়া ইউনিয়নের ভোলানাথপুর আশ্রয়ন ২-প্রকল্পের আওতায় উপকারভোগীদের মাঝে ব্যারাক হাউজের চাবি হস্তান্তর করা হয়।
সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামালের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মহশীন আলী, খুলনা বিভাগীয় কমিশনার ড. মুঃ আনোয়ার হোসেন হাওলাদার, প্রকল্প পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) ইউসুফ আলী, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর আলিফ রেজা, কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মিসেস শাহানারা বেগম প্রমুখ।

শেয়ার