মুশফিক-ইমরুলরা যখন বোলার

সমাজের কথা ডেস্ক॥ নেট অনুশীলনের প্রতিদিনের চেনা চিত্র পাল্টে গেল হঠাৎ। সাধারণত মূল ব্যাটসম্যানরাই পর্যায়ক্রমে ব্যাট করেন লম্বা সময় ধরে, বোলাররা সুযোগ পান সামান্য। কিন্তু মঙ্গলবার ব্যাট হাতে নেটে দেখা গেল তাইজুল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ, রুবেল হোসেনদের। বোলারের ভূমিকায় তখন মুশফিকুর রহিম, ইমরুল কায়েস, সাদমান ইসলামরা!
যথারীতি এখানেও সবার আগে দেখা গেল মুশফিককে। নেটে ব্যাটসম্যান যাওয়ার আগেই একা একা খানিকটা ঝালিয়ে নিলেন নিজের লেগ স্পিন!

পরে মুশফিকের সঙ্গে বোলিং-আনন্দে মেতে উঠলেন ইমরুল, সাদমানরা। তামিম ইকবালও দু-একবার হাত ঘোরালেন। তবে আম্পায়ারের দায়িত্বেই তাকে বেশি আগ্রহী মনে হলো।

এ দিনের অনুশীলন সূচিতে ছিল লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যানদের ব্যাটিং সেশন। শের-ই-বাংলার সেন্টার উইকেটে সেটিরই নমুনা দেখা গেল। বোলারদের তালিকায় থাকা নামগুলি দেখে ঢিলেঢালা অনুশীলন ভাবতে পারেন অনেকে। তবে স্রেফ তারাই নয়, আর্ম থ্রোয়ার ও মূল বোলাররাও বোলিং করেছেন।
লেজের ব্যাটসম্যানদের একজন, নানা সময়ে ব্যাট হাতে যিনি টুকটাক অবদান রেখেছেন, সেই তাসকিন আহমেদ অনুশীলনের পর বললেন, ব্যাটিং অর্ডারের নিচের দিক থেকে দলে আরও অবদান রাখতে চান তারা।

“আজকে আমাদের সব বোলারদের ব্যাটিং সেশন ছিল নেটে। বেশ উপভোগ করেছি। যদিও বোলাররা ও থ্রোয়াররা বেশ কঠিন সময় দিচ্ছিল। তবে এই চ্যালেঞ্জেগুলো নেওয়া শিখতে হবে। কারণ ওপরের ব্যাটসম্যানদের সহায়তা করতে হলে টেল-এন্ডারদের উন্নতি করতেই হবে। আমরাও চেষ্টা করছি। আগের চেয়ে উন্নতি হচ্ছে। আশা করছি, সামনে আরও ভালো করবে আমাদের টেল-এন্ডাররা।”

শেয়ার