নড়াইলের বিছালী ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

নড়াইল প্রতিনিধি ॥ নড়াইল সদর উপজেলার বিছালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এসএম আনিসুল ইসলামের বিভিন্ন অপকর্মের প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১২ নং বিছালী ইউনিয়নবাসীর আয়োজনে সোমবার বিকেলে মীর্জাপুরে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
মানববন্ধনে এলাকার শতাধিক নারী-পুরুষ অংশগ্রহণ করে চেয়ারম্যানের বিভিন্ন অপকর্মের বিচার দাবি করেন। মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য দেন হাফেজ মাওলানা রুবেল আহম্মেদ, মো: সাহেব আলী, কওসার মোল্যা, মো: এনায়েত গাজী, মো: বখতিয়ার মোল্যা, ছালাম শেখ, ইনছার আলী মোল্যা, অলেকা বেগম, জেসমিন বেগম, সাথী বেগম প্রমূখ।
বক্তারা বলেন, নড়াইল সদর উপজেলার বিছালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এসএম আনিসুল ইসলাম প্রতারক, সন্ত্রাসী ও দুর্নীতিবাজ। চেয়ারম্যান ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর লোকজন ক্ষমতার অপব্যবহার ও জনগণকে জিম্মি করে মিথ্যা স্বাক্ষর নিয়ে এবং ষড়যন্ত্রমূলক মামলা ঠুকে এলাকার সহজ সরল মানুষদের হয়রানি করছেন। চেয়ারম্যান ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর বিভিন্ন অপকর্ম ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে ভয়ে কেউ মুখ খুলতে সাহস পান না। ইউনিয়নের রাস্তাসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে সরকারিভাবে বরাদ্দকৃত অর্থ সঠিকভাবে ব্যয় না করে ক্ষমতাবলে আত্মসাৎ করেন। বয়স্ক ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতার কার্ড, বিধবা কার্ডসহ ইউনিয়ন পরিষদের বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা পাইয়ে দিতে চেয়ারম্যান আনিসুল ইসলাম অনৈতিক সুবিধাও গ্রহণ করেন।
হাফেজ মাওলানা রুবেল আহম্মেদ বলেন, চেয়ারম্যান ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর ভয়ে আমরা বাজারে যেতে পারি না। চেয়ারম্যান ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর লোকজনকে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জন্য প্রশাসনের কাছে জোর দাবি জানচ্ছি। মীর্জাপুর গ্রামের কওসার মোল্যা জানান, চেয়ারম্যানকে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দিতে হয়েছে। আমার কাছে আরও ২ লাখ টাকা দাবি করা হচ্ছে। টাকা না দিলে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে চেয়ারম্যান ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর লোকজন। মো: এনায়েত গাজী, অলেকা বেগম ও সাথী বেগম বলেন, গ্রামের বেনজীর হোসেন চেয়ারম্যান ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর বিভিন্ন অপকর্মের প্রতিবাদ করায় তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক মামলা দায়েরসহ বিভিন্ন অপপ্রচার চলানো হচ্ছে।

শেয়ার