আশাশুনির ভাঙন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করে সুখবর জানালেন এমপি রুহুল হক

ফায়জুল কবির আশাশুনি প্রতিনিধি ॥ সুপার সাইক্লোন আম্পানের কয়েক মাস অতিবাহিত হওয়ার পর শনিবার বেলা ১১ টার দিকে সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডাঃ আ ফ ম রুহুল হক (এমপি) ভাঙণ কবলিত শ্রীউলা প্রতাপনগর ও আশাশুনি সদর ইউনিয়ন পরিদর্শন করেন। এ সময় হাজার হাজার প্লাবিত মানুষকে সুখবর জানিয়ে তিনি বলেন টেকসই মজবুত নতুন ডিজাইনে দু হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। অতি শীঘ্রই ভাঙন কবলিত এলাকা গুলির বাঁধ নির্মাণ কাজ শুরু হবে। এদিকে দীর্ঘদিন পর প্রিয় নেতার আগমনের খবর পানিবন্দি মানুষের মাঝে পৌছালে তাকে এক নজর দেখার জন্য উপছে পড়া ভিড় লক্ষ্য করা যায়। পানিবন্দি মানুষ প্রিয় নেতাকে কাছে পেয়ে আবেগে আপ্লুত হয়ে পড়ে। তাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন প্রবল ¯্রােত ও বৃষ্টিপাতের কারণে এখন এই মূল বাঁধের কাজ করা যাচ্ছে না। এজন্য বৃহত্তর অংশের মানুষকে রক্ষার্থে রিং বাধের কাজ চলছে। খুব শীঘ্রই মূল বাঁধের কাজ শুরু হবে। তিনি সকলকেই বাঁধের কাজে সহযোগিতার আহবান জানিয়ে বলেন প্লাবিত মানুষ এখন বাসস্থান এর সমস্যা খাদ্য সমস্যা রান্না সমস্যা এবং সুপেয় পানি ও স্যানিটেশন সমস্যা নিয়ে ভুগছেন। এসব মানুষের খাদ্য সহায়তার জন্য ইতিমধ্যে ব্যাপক ত্রাণ দেওয়া হয়েছে। প্রয়োজনে আরও দেওয়া হবে। ঘরে উঠা পর্যন্ত সরকার সকলের পাশে থাকবে এবং পরবর্তীতে ক্ষতি পুষিয়ে নিতে সরকারের পরিকল্পনা রয়েছে। তিনি প্লাবিত মানুষদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন। এসময় তার সফর সঙ্গী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মীর আলিফ রেজা, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অসীম বরণ চক্রবর্ত্তী, আশাশুনি থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) গোলাম কবির, এমপি প্রতিনিধি ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শম্ভুজিত মন্ডল, শ্রীউলা ইউপি চেয়ারম্যান আবু হেনা সাকিল, প্রতাপনগর ইউপি চেয়ারম্যান শেখ জাকির হোসেন, আনুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আলমগীর আলম লিটন, পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি নীলকণ্ঠ সোম, সাধারণ সম্পাদক রনজীৎ বৈদ্য, উপজেলা শ্রমিক লীগ এর সভাপতি ঢালী শামসুল আলম, পানি উন্নয়ন বোর্ডের এসও রাব্বি হাসান, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ এর সভাপতি এস এম সাহেব আলী প্রমুখ। উল্লেখ্য সাবেক এই মন্ত্রী শ্রীউলা ইউপি চেয়ারম্যান সাকিলের রিং বাধের ভূয়সী প্রশংসা করে তাকে ধন্যবাদ জানান এবং তার কাজের সহযোগিতা করার জন্য সকলকে আহবান জানান।

শেয়ার