পারিবারিক নির্যাতনের শিকার কবি সন্তোষ দত্ত গুরুতর অসুস্থ

রাজগঞ্জ প্রতিনিধি॥ আন্তর্জাতিক সাহিত্য স্বর্নপদকপ্রাপ্ত, দুই বাংলার অন্যতম স্বনামধন্য সাহিত্যরতœ কবি সন্তোষ কুমার দত্তকে বার বার হত্যার চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। কবি নি:সন্তান এবং একজন হার্ট ও ডায়াবেটিক রোগী। ডাক্তার তাকে নির্দেশ দিয়েছেন কোনো প্রকার টেনশন, মানসিক আঘাত কিংবা উত্তেজনা, তার জন্য হার্ট ব্লক করে মৃত্যুর কারন হতে পারে। আর এই সুযোগটিকে হাতিয়ার করেছে কবির পারিবারিক কয়েকজন নিষ্ঠুর ভূমি দস্যু। কবি সন্তোষ কুমার দত্তকে অহরহ সম্পূর্ণ অকারণে গালাগালি, ব্যঙ্গ-বিদ্রুপ, মানহানী, মিথ্যাচারে জর্জরিত করে উত্তেজনা ঘটিয়ে কবিকে মেরে ফেলে দেয়ার চেষ্টা করছে এবং তার বাড়ী-ঘর বিষয় সম্পত্তি জবর দখলের হীন চেষ্টায় মেতে রয়েছে। সহজ-সরল দয়ালু দাতা হাসিখুশী কবি সন্তোষ কুমার দত্ত তারই পরিবারের কয়েকজন ভূমি দস্যুর আক্রমনে গুরুতর হৃদরোগের লক্ষণ নিয়ে বর্তমানে যশোর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের বিশিষ্ট বক্ষব্যাধি হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ মধুসূদন পাল (এল,ডি,কার্ডিওলজী) এর অধীনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তার অবস্থা খুবই আশংকাজনক। এদিকে বর্ষীয়ান এই কবির রোগ মুক্তি কামনা করে বিবৃতি দিয়েছেন ঢাকাস্থ মাইকেল মধুসূদন একাডেমির মহা ব্যবস্থাপক ও সাংস্কৃতিক মন্ত্রানালয়ের পরিচালক (অবঃ) কবি অসীম সাহা, মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রানালয়ের উপসচিব কবি শিবপদ মন্ডল, শিক্ষা মন্ত্রানালয়ের ড. মিজানুর রহমান, মণিরামপুর উপজেলা দূর্নীতি দমন কমিটির চেয়ারম্যান বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ কবি মো. রহমতুল্যাহ, শিক্ষাবিদ কবি রতœ তারাপদ দাস, অধ্যক্ষ আব্দুল লতিফ, চেয়ারম্যান সামছুল হক মন্টু, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. কওছার আহমেদ, সাবেক চেয়ারম্যান গোলাম রসুল চন্টা, নাট্যকার কবি দীপংকার দাস রতন, শিল্পী শ্রাবনী সুর, হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি কবি তপন বিশ্বাস পবন, কবি অরুন নন্দন প্রমুখ।

শেয়ার