যশোরে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে দেখতে গিয়ে শ্বশুর বাড়িতে মারপিটের শিকার শিক্ষক

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোরে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে দেখতে গিয়ে শ্বশুর বাড়ির লোকজনের কাছে মারপিটের শিকার হয়েছেন জামাই মাদ্রাসা শিক্ষক সাইফুল ইসলাম ও তার পরিবারের সদস্যরা। এই ঘটনায় সাইফুল ইসলাম বাদী হয়ে শ্বশুর, শাশুড়িসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলা করেছেন। বাদী সাইফুল ইসলাম সদর উপজেলার আবাদ কচুয়া গ্রামের হাতেম পাড়ার ছবদুল আলী মোল্যার ছেলে। তিনি রামনগর জামিয়াতুল মাদ্রাসার শিক্ষক। আসামিরা হলো, সাইফুল ইসলামের শ্বশুর সদর উপজেলার খরিচাডাঙ্গা গ্রামের বাবলু ইসলাম বুলু, শাশুড়ি তাছলিমা বেগম, একই এলাকার শিমুল, শরিফুল ইসলাম, রাকিব হোসেন, নয়ন হোসেন, মশিয়ার রহমান, তৌহিদ এবং হুমায়ুন।
বাদী মামলার এজহারে উল্লেখ করেছেন, তার স্ত্রী ফারজানা আক্তার বৃষ্টি বর্তমানে অন্তসত্ত্বা। সেই কারণে বৃষ্টি তার পিতার বাড়িতে আছে। বৃষ্টির পিতার দাওয়াতে গত ১১ সেপ্টেম্বর বিকেলে পরিবারের লোকজন নিয়ে জামাই সাইফুল ওই শ্বশুর বাড়িতে যান। সেখানে যাওয়া মাত্রই তারা নানাভাবে কথাকাটাকাটিতে জাড়িয়ে পড়েন। এরপর সাইফুলসহ তার সাথে থাকা পরিবারের আরো ৪/৫জন সদস্যকে এলোপাতাড়ি মারপিট করে গুরুতর জখম করে। পরে তারা সেখান থেকে ফিরে হাসপাতালে ভর্তি হন এবং কোতোয়ালি থানায় এই মামলা করেন।

শেয়ার