মাদকের গডফাদারকে বেঁধে রেখে খবর দেবেন: এমপি চঞ্চল

মহেশপুর (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি ॥ ঝিনাইদহ-৩ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব শফিকুল আজম খান চঞ্চল বলেছেন, শুধু সীমান্ত এলাকাতেই না, আমার এলাকায় কোন মাদক সেবনকারি ও মাদক ব্যবসায়ীদের ঠাই হবে না। তাদের গডফাদারদের ধরে গাছের সাথে বেঁধে রেখে আমাকে খবর দেবেন। আমি আমার এলাকায় কোন মাদক ব্যবসায়ীর চিহ্ন রাখবো না। তিনি আরো বলেন, যাদবপুর সীমান্ত এলাকায় যেভাবে মাদক বেচাকেনা হয় তা আমি জানি। কারা কারা সেবন করে তাও আমার জানা। আজকের পর যদি কেউ এ পথে থাকার চেষ্টা করে তাহলে তাদের মূল শেকড় পর্যন্ত উপরে ফেলা হবে। আমার সাথে কোন মাদক সেবনকারী বা মাদক ব্যবসায়ীর কোন আপষ নেই। সংসদ সদস্য আরো বলেন, মাদক ব্যবসায়ীদের যারা গডফাদার বা মদদদাতা তাদের হাত যত বড়ই হোন সরকারের হাতের থেকে বড় না। তাদের সে হাতও ভেঙ্গে দেয়া হবে।
বৃহস্পতিবার দুপুরে ঝিনাইদহের মহেশপুরের যাদবপুর প্রগতি বিদ্যা নিকেতন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত শিক্ষক, ইমাম, কাজি, ছাত্র-ছাত্রী, অভিভাবক ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে মাদক-বাল্য বিবাহ এবং আতœহত্যা প্রতিরোধে ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাশ্বতী শীলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মাদক-বাল্য বিবাহ এবং আতœহত্যা প্রতিরোধে ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠানের আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মহেশপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ময়জদ্দীন হামিদ, ৫৮ বিজিবি’র অধিনায়ক লেঃকর্ণেল কামরুল আহসান, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আজিজুল হক আজা, হাসিনা খাতুন হেনা, থানার অফিসার ইনর্চাজ (ওসি) মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম, যাদবপুর ইউপি চেয়ারম্যান এবিএম শাহীদুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক প্রচার সম্পাদক মুক্তার হোসেন, যাদবপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মহিদুল ইসলাম মাস্টার, সাধারণ সম্পাদক ডাঃ সালাউদ্দীন আহাম্মেদ, নাটিমা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম মাস্টার, উপজেলা শিক্ষক সমিতির সভাপতি মাহাবুব আজম ইকবাল ঝড়– প্রমুখ।

শেয়ার