ভারতের নতুন সংসদ ভবন তৈরি করবে টাটা

সমাজের কথা ডেস্ক॥ ভারতের রাজধানীতে নতুন সংসদ ভবন তৈরির দায়িত্ব পেয়েছে টাটা প্রজেক্টস লিমিটেড। ১১ কোটি ৭০ লাখ ডলার ব্যয়ে টাটা দিল্লিতে এ স্থাপনা নির্মাণ করবে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, ২০২২ সাল নাগাদ টাটার নির্মাণকাজ শেষ হবে বলে আশা করা হচ্ছে। ওই বছর ভারতের স্বাধীনতার ৭৫ বছর পূর্তি সামনে রেখে হাতে নেওয়া হয়েছে এ প্রকল্প।

ভারতের বর্তমান সংসদ ভবনটি ইংরেজদের শাসনামলে তৈরি। ঐতিহাসিক এ ভবনের পাশেই নতুন ভবনটি হবে। বর্তমান ভবনটি গোলাকার, আর নতুন ভবনটি হবে ত্রিভূজ আকৃতির।

পুরোনো ভবনের চেয়ে আকার-আকৃতিতেও বড় হবে নতুন ভবন। সেখানে ১,৪০০ এমপি’র বসার আসন থাকবে বলে জানিয়েছে প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়া।

নতুন সংসদ ভবন তৈরির পর পুরোনো ভবনটি সংস্কার করা হবে। এরপর সেটি সরকারি কাজেই ব্যবহারের পরিকল্পনা রয়েছে।

সেই ১৯১১ সালে ব্রিটিশ ভারতের রাজধানী কলকাতা থেকে দিল্লিতে স্থানান্তরিত হওয়ার পর সেখানে সংসদ ভবন তৈরিতে ডাক পড়েছিল ব্রিটিশ স্থপতি এডউইন লুটেনস এবং হার্বাট বেকারের।

এরপর ১৯২৭ সালে তৈরি হয় হাউজ অফ পার্লামেন্ট৷ স্বাধীনতার পর এটিই ভারতের সংসদ ভবন হিসেবে ব্যবহার হয়ে আসছে।

কিন্তু বহু বছরের পুরোনো এই ভবন সংস্কারের প্রয়োজন হয়ে পড়েছে। তাছাড়া, সংসদ সদস্য ও সংসদ কর্মচারীর সংখ্যা বাড়ায় সেখানে তাদের স্থানসংকুলানও কঠিন হচ্ছে । এ কারণে নতুন সংসদ ভবন তৈরি করতে চায় ভারতের নরেন্দ্র মোদী সরকার।

তবে সমালোচকরা বলছেন, সরকারের এই বিপুল অর্থ নতুন সংসদ ভবন নির্মাণে ব্যয় না করে, বরং তা করোনাভাইরাস মহামারী নিয়ন্ত্রণে আনতে ব্যয় করা উচিত।

ভারতে এখন শনাক্ত হওয়া করোনাভাইরাস রোগীর সংখ্যা ৫০ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। বিশ্বে ভাইরাস আক্রান্তের তালিকায় ভারত এখন দ্বিতীয় স্থানে। আর এ পর্যন্ত দেশটিতে করোনাভাইরাসে মারা গেছে ৮০ হাজারের বেশি মানুষ।

শেয়ার