পাইকগাছা উপজেলা চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচন সম্ভাব্য প্রার্থীদের তোড়জোড় শুরু

মো. আব্দুল আজিজ, পাইকগাছা, খুলনা ॥ পাইকগাছা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর তোড়জোড় শুরু করেছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা। এবারের উপ-নির্বাচনে বিএনপি’র একক প্রার্থীর নাম শোনা গেলেও আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেতে দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন সম্ভাব্য ১০ প্রার্থী। আগামী ২০ অক্টোবর নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করে গত ১৪ সেপ্টেম্বর উপজেলা চেয়ারম্যানের শূন্য পদে উপ-নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। তফসিল অনুযায়ী ২৩ সেপ্টেম্বর মনোনয়ন পত্র দাখিলের শেষ তারিখ, ২৬ সেপ্টেম্বর মনোনয়ন পত্র যাচাই-বাছাই এবং ৩ অক্টোবর প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। এদিকে তফসিল ঘোষণার পর উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচনকে ঘিরে সর্বত্রই চলছে আলোচনা। তবে বিগত নির্বাচনে বিরোধী দলের কোন প্রার্থী অংশগ্রহণ করেনি। এক্ষেত্রে এবারের নির্বাচনে বিএনপি’র প্রার্থী থাকতে পারে এমন আলোচনা হচ্ছে সকল ক্ষেত্রে। তবে নির্বাচনকে ঘিরে আলোচনায় প্রাধান্য পাচ্ছে কে পাচ্ছেন আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন, কে হচ্ছেন আগামী উপজেলা চেয়ারম্যান এসব নানা বিষয়। সম্ভাব্য প্রার্থীদের তালিকা বিএনপি’র চেয়ে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের তালিকা অনেক বড় সড়। সম্ভাব্য প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক এমএনএ শহীদ এমএ গফুর এর ছেলে আনোয়ার ইকবাল মন্টু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সমীরণ সাধু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ সদস্য শেখ কামরুল হাসান টিপু, সাবেক সদস্য সচিব ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মো. রশীদুজ্জামান, সদ্য প্রয়াত সাবেক এমপি আলহাজ অ্যাড. শেখ মো. নূরুল হকের দুই ছেলে আওয়ামী লীগনেতা আলহাজ্ব শেখ মনিরুল ইসলাম ও যুবলীগনেতা শেখ রাশেদুল ইসলাম রাসেল, সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগনেতা কৃষ্ণপদ মন্ডল, ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা ফরহাদ উজ্জামান তুষার ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি অ্যাড. শেখ আবুল কালাম আজাদ। অপরদিকে বিএনপি’র একক সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি ডা. আব্দুল মজিদ এর নাম শোনা যাচ্ছে। বর্তমানে দলীয় মনোনয়ন নিশ্চিত করতে আওয়ামী লীগের বেশিরভাগ সম্ভাব্য প্রার্থীরা ঢাকায় অবস্থান করছেন।

শেয়ার