খুলনায় তিন লাখ ৩৮ হাজার শিশুকে খাওয়ানো হবে ভিটামিন এ ক্যাপসুল

এস.এম. সাঈদুর রহমান সোহেল, খুলনা ॥ আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে ৮ অক্টোবর পর্যন্ত খুলনায় শিশুদের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। এ বছর খুলনা জেলায় ৩ লাখ ৩৮ হাজার ৭৬৬ শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানোর লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে খুলনা স্কুল হেলথ ক্লিনিকের সম্মেলনকক্ষে জেলা পর্যায়ের অবহিতকরণ ও পরিকল্পনা সভায় এ তথ্য জানানো হয়।
জাতীয় ভিটামিন-এ প্লাস ক্যাম্পেইন পালন উপলক্ষে খুলনা সিভিল সার্জন দপ্তর এই সভার আয়োজন করে। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন। সভাপতিত্ব করেন খুলনার সিভিল সার্জন ডা. সুজাত আহমেদ।
অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন খুলনা আঞ্চলিক তথ্য অফিসের উপপ্রধান তথ্য অফিসার ম. জাভেদ ইকবাল, পরিবার পরিকল্পনা দপ্তরের উপারিচালক মো. আব্দুল আলিম, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার এএসএম সিরাজুদ্দোহা, জেনারেল হাসপাতালের শিশু বিশেষজ্ঞ ডা. মো. শরাফত হোসাইন প্রমুখ। ধারণাপত্র উপস্থাপন করেন জাতীয় পুষ্টি প্রতিষ্ঠানের ফিজিসিয়ান ডা. জাকিয়া আলম।
সভায় জানানো হয়, এ বছর খুলনা জেলায় নয়টি উপজেলা, একটি সিটি কর্পোরেশন এবং দুইটি পৌরসভায় ৬ থেকে ১১ মাস বয়সী ৪০ হাজার ৫২০ এবং ১২ থেকে ৫৯ মাস বয়সী ২ লাখ ৯৮ হাজার ৩৪৬ শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানোর লক্ষ্য মাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।
খুলনার সিভিল সার্জন ডা. সুজাত আহমেদ বলেন, ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে ৮ অক্টোবর পর্যন্ত ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন পালিত হবে। প্রতিদিন সকাল আটটা থেকে বিকাল চারটা পর্যন্ত শিশুদের বিনামূল্যে একটি করে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। এছাড়া ৬ হতে ১১ মাস বয়সী শিশুকে নীল রঙের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল (এক লাখ আই, ইউ) এবং ১২-৫৯ মাস বয়সী শিশুকে লাল রঙের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল (দুই লাখ আই, ইউ) খাওয়ানো হবে। তবে অসুস্থ শিশু ও বিগত চার মাসের মধ্যে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল প্রাপ্ত শিশুকে এই ক্যাপসুল খাওয়ানো যাবে না। করোনা ভাইরাস সংক্রমণের কারণে এবার শুধু টিকা কেন্দ্রগুলোতে শিশুদের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে বলেও জানান তিনি।

শেয়ার