প্রতিদিন ৬ টন করে পেঁয়াজ সরবরাহ করছে টিসিবি
বাজার স্থিতিশীল রাখতে যশোরে শুরু হয়েছে ৩০ টাকা কেজি পেঁয়াজ বিক্রি

সালমান হাসান রাজিব
দাম বৃদ্ধির অস্থিরতার মধ্যে যশোরে খোলা বাজারে সাশ্রয়ী মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু করেছে ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)। মূল্য স্বাভাবিক রাখতে পুরো জেলায় প্রতিদিন ৬ টন করে পেঁয়াজ সরবরাহ করছে প্রতিষ্ঠানটি। পুরো সেপ্টেম্বর মাস জুড়ে সুলভ দামে পেঁয়াজ বিক্রির এই কার্যক্রম চালু থাকবে। ৩০ টাকা কেজি দরে প্রতিজন ২ কেজি পর্যন্ত এই পেঁয়াজ কিনতে পারবেন।
তবে দুই কেজি পেঁয়াজ নিতে হলে তেল, চিনিসহ ডালের ৭২০ টাকা দামের পুরো একটি প্যাকেজ কিনতে হচ্ছে। ৫ লিটার তেল, ৩ কেজি চিনি ও ২ কেজি ডাল ও ২ কেজি পেঁয়াজ থাকছে প্যাকেজটিতে। ফলে অল্প আয়ের সাধারণ মানুষজন ন্যায্য মূল্যের এই পেঁয়াজ কেনার সুযোগ বঞ্চিত হচ্ছেন। কিন্তু টিসিবির পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে ভিন্ন কথা। প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ বলছেন, কোন প্যাকেজ নয়, কারো দরকার হলে শুধুমাত্র এক কেজি পেঁয়াজও কিনতে পারবেন। কারণ ভ্যান রিক্সাচালকসহ বিভিন্ন শ্রমজীবী মানুষের পক্ষে অনেক দামের কোন প্যাকেজ কেনা সম্ভব নয়।
জানা যায়, সোমবার ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধের খবর ছড়িয়ে পড়া মাত্র যশোরের বাজারে পেঁয়াজের বৃদ্ধি পেয়েছে। এদিন দুপুর গড়াতেই খুচরা বাজারে পেঁয়াজের দাম লাফিয়ে বেড়ে যায়। কয়েকদিন আগেও ৪০ থেকে ৫০ টাকা দরে বিক্রি হওয়া দেশি পেঁয়াজের দাম বেড়ে ৮০ টাকায় গিয়ে দাঁড়ায়। আর ৩০ থেকে ৪০ টাকা কেজি দরের ভারতীয় পেঁয়াজের দাম ৫০ থেকে ৬০ টাকায় বিক্রি শুরু হয়। টিসিবির খুলনা বিভাগের ঝিনাইদাহ আঞ্চলিক কার্যালয় সূত্র জানায়, গত ১৩ সেপ্টেম্বর থেকে সাশ্রয়ী দামে পেঁয়াজসহ তেল, চিনি ও ডাল বিক্রির কার্যক্রম শুরু হয়েছে। যশোরে ৩টি ট্রাকে করে প্রতিদিন ৬ টন পেঁয়াজ খোলা বাজারে বিক্রি হবে। ৩টি ট্রাকের মধ্যে ১টি সদরে ও বাকী ২টি অন্য টিসিবির পণ্য বিক্রি করবে। প্রতিটি ট্রাক থেকে ২ টন বা ২০০ কেজি করে পেঁয়াজ বিক্রি হবে। জেলার ৩৭টি ডিলারের মাধ্যমে আগামী ১ অক্টোবর পর্যন্ত নায্য দামে পণ্য বিক্রির এই কার্যক্রম চালু থাকবে।
সূত্র মতে, গত ১৩ সেপ্টেম্বর থেকে গতকাল মঙ্গলবার পর্যন্ত এই তিন দিনে টিসিবির ডিলারদের মাধ্যমে যশোরে ২০ টন পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে। ১০টি ট্রাকে করে জেলার বিভিন্ন স্থানে নায্যা মূল্যের এই পেঁয়াজ বিক্রি করেছে ডিলাররা। আগামী সোমবার পর্যন্ত মোট ২৯ টন পেঁয়াজ সরবরাহ হবে। টিসিবি ঝিনাইদাহ আঞ্চলিক কার্যালয়ের সহকারী কার্যনির্বাহী (অফিস প্রধান) সোহেল রানা জানান, বাজার স্থিতিশীল রাখতে যশোরের সব উপজেলায় খোলাবাজারে ৩০ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু করা হয়েছে। প্রতিটি স্থানে প্রতিদিন ২০০ কেজি পেঁয়াজ বিক্রি করা হবে। আর প্রতিজন সর্বোচ্চ দুই কেজি পেঁয়াজ কিনতে পারবেন।

শেয়ার