৯৯৯ এ ফোন: ‘ধর্ষণ থেকে’ রক্ষা পেলেন ৪ তরুণী

সমাজের কথা ডেস্ক॥ নারায়ণগঞ্জে পিকনিকে ভাড়ায় নাচতে গিয়ে ধর্ষণের হুমকির মুখে পড়া চার নৃত্যশিল্পীকে উদ্ধার করেছে আইনশৃংখলা বাহিনী।

বিপদে পড়ে ৯৯৯-এ ফোন করায় শনিবার রাতে অভিযান চালিয়ে রূপগঞ্জ সদর ইউনিয়নের পিতলগঞ্জ এলাকা থেকে ইঞ্জিন চালিত ট্রলার থেকে তাদেরকে উদ্ধার করা হয়।

রূপগঞ্জ থানার ভোলাব তদন্ত কেন্দ্রের পরিদর্শক সাইফুল ইসলাম জানান, শনিবার সকালে উপজেলার রূপগঞ্জ এলাকা থেকে ৩০/৩৫ জন যুবক ইঞ্জিন চালিত ট্রলারে নদী পথে পিকনিকের আয়োজন করে। পিকনিকের আনন্দ উল্লাসের জন্য রাজধানী থেকে চার নৃত্যশিল্পীকে ১১ হাজার টাকার বিনিময়ে নিয়ে আসে তারা।

“তাদের সাথে কথা ছিল-সন্ধ্যায় তাদেরকে ট্রলার থেকে তীরে নামিয়ে দেওয়া হবে।”

তিনি বলেন, সন্ধ্যা গড়িয়ে রাত নেমে আসলেও পিকনিকের আয়োজক রূপগঞ্জ গ্রামের হৃদয়, বিপ্লব, নিলয়, শাওন, রাসেল, সাগরসহ অন্যরা তাদের তীরে না নামিয়ে বিভিন্ন আশালীন আচরণ করতে শুরু করে। এক পর্যায়ে চার তরুণীকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা চালায় তারা। এ সময় এক তরুণী ৯৯৯-এ কল করে তাদের উদ্ধারের জন্য সহায়তা চায় বলে জানান তিনি।

পুলিশ কর্মকর্তা জানান, পরে রাত ১১টার দিকে রূপগঞ্জ থানা পুলিশ এবং নৌ-পুলিশ অভিযান চালিয়ে শীতলক্ষ্যা নদীর পিতলগঞ্জ কাচারী ঘাট এলাকা থেকে তাদের উদ্ধার করে। তবে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পিকনিকে আসা যুবকরা পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় নৌ-পুলিশ ইছাপুরা ফাড়িতে একটি অভিযোগ করা হয়েছে।

শেয়ার