কোভিড-১৯: ভারতে মৃত্যু ছাড়াল ৩২ হাজার

সমাজের কথা ডেস্ক॥ নতুন করোনাভাইরাসে মহামারীতে ভারতে মৃত্যুর সংখ্যা ৩২ হাজার ছাড়িয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

রোববার স্থানীয় সময় সকাল ৮টা থেকে পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় নতুন আরও ৪৮ হাজার ৬৬১ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছেন বলেও জানিয়েছে তারা। সব মিলিয়ে দেশটিতে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১৩ লাখ ৮৫ হাজার ৫২২ জনে দাঁড়িয়েছে।

আনন্দবাজার জানিয়েছে, ২০ জুলাই ভারতে শনাক্ত মোট রোগীর সংখ্যা ১১ লাখ পেরিয়েছিল, এরপর ৬ দিনের মধ্যেই সংখ্যাটি ১৪ লাখের কাছাকাছি পৌঁছে গেছে।

দেশটিতে এখন দৈনিক শনাক্তের পরিমাণও উদ্বেগ বাড়াচ্ছে। ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া তথ্যে টানা চারদিন ৪৫ হাজারের বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছে বলে দেখা যাচ্ছে।

কোভিড-১৯ এ মৃত্যু সংখ্যার দিক থেকে স্পেন ও ফ্রান্সকে টপকে যাওয়া ভারতে রোববার সকাল থেকে পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় আরও ৭০৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে সরকারি হিসাবেই করোনাভাইরাসে মোট মৃতের সংখ্যা ৩২ হাজার ৬৩ জনে দাঁড়াল।

এর মধ্যে কেবল মহারাষ্ট্রেই মৃত্যু হয়েছে ১৩ হাজার ৩৮৯ জনের। তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে থাকা দিল্লিতে প্রাণ গেছে ৩ হাজার ৮০৬ জনের। ৩ হাজার ৪০৯ জনের মৃত্যু নিয়ে এরপরই আছে তামিলনাডু।

গুজরাটে কোভিড-১৯ দুই হাজার ৩০০ জনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে। কর্নাটক, উত্তর প্রদেশ ও পশ্চিমবঙ্গে মৃত্যু হাজার ছাড়িয়েছে।

শনাক্ত রোগী সংখ্যায়ও মহারাষ্ট্র ভারতের সব রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মধ্যে শীর্ষে আছে। রোববার পর্যন্ত পশ্চিমাঞ্চলীয় এ রাজ্যটিতে তিন লক্ষ ৬৬ হাজার ৩৬৮ জনের দেহে করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে।

তামিলনাডুতে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা পেরিয়েছে ২ লাখ ৬ হাজার। গত কয়েক দিনে কর্নাটক ও অন্ধ্রপ্রদেশে দৈনিক শনাক্তের পরিমাণ তুলনামূলক বেশি দেখা যাচ্ছে বলে জানিয়েছে আনন্দবাজার।

ভারতে সংক্রমণ তালিকার চতুর্থ ও পঞ্চম স্থানে উঠে এসেছে দক্ষিণের এই দুই রাজ্য। কর্নাটকে মোট ৯০ হাজার ৯৪২ জন এবং অন্ধ্রপ্রদেশে ৮৮ হাজার ৬৭১ জনের দেহে ভাইরাসটির উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে।

রোববার সকাল ৮টা থেকে পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় পশ্চিমবঙ্গে নতুন ২ হাজার ৪০৪ জনের দেহে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। ওই সময়ে আরও ৪২ জনের মৃত্যু নিয়ে এ রাজ্যে করোনাভাইরাসে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৩৩২ জনে।

ভারতের মোট করোনাভাইরাস আক্রান্তদের মধ্যে মধ্যে রোববার পর্যন্ত সাড়ে ৮ লাখেরও বেশি সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। পশ্চিমবঙ্গে শনাক্ত ৫৬ হাজার ৭৩৭ জন রোগীর মধ্যেও ৩৫ হাজার ৬৫৪ জন সুস্থ হয়েছেন।

শেয়ার