বিপুল জনপ্রিয়তায় এগিয়ে শাহীন চাকলাদারের নৌকা

শাহীন চাকলাদারএস আর সাঈদ, কেশবপুর (যশোর) থেকে ॥ যশোর-৬ কেশবপুর সংসদীয় আসনের স্থগিত হওয়া উপনির্বাচন আজ ১৪ জুলাই। সকাল ৯ টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। সুষ্ঠুভাবে ভোটগ্রহণের জন্য ইতিমধ্যে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। ব্যাপক গণসংযোগ ও পথসভা করায় আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী শাহীন চাকলাদারের পক্ষে উপজেলাব্যাপী গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। জানা গেছে, যশোর-৬ কেশবপুর সংসদীয় আসনের এমপি সাবেক জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ইসমাত আরা সাদেক গত ২১ জানুয়ারি মৃত্যুবরণ করায় আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়। ১৬ ফেব্রুয়ারি উপনির্বাচনের তফশিল ঘোষণা করেন নির্বাচন কমিশন। মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষদিন ছিল ২৭ ফেব্রুয়ারি এবং ২৯ মার্চ উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার, বিএনপির মনোনয়ন পেয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন উপজেলা বিএনপির সভাপতি আবুল হোসেন আজাদ ও জাতীয় পার্টি থেকে মনোনয়ন পেয়ে জমা দেন কেন্দ্রীয় নেতা হাবিবুর রহমান।
নির্বাচন কমিশনের তফশিল অনুযায়ী প্রার্থীরা গণসংযোগ চালাতে থাকেন। আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী শাহীন চাকলাদার দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে উপজেলাব্যাপী ব্যাপক গণসংযোগ করেন। বিএনপি মনোনীত ধানের শীষের প্রার্থী আবুল হোসেন আজাদ ও জাতীয় পার্টি মনোনীত লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থী হাবিবুর রহমান ধীরগতিতে গণসংযোগ করেন। এরই মাঝে করোনাভাইরাসের কারণে ২২ মার্চ উপনির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করেন নির্বাচন কমিশন।
করোনাভাইরাস মহামারীতে কেশবপুর উপজেলাবাসীর পাশে দাঁড়ান যশোর-৬ কেশবপুর সংসদীয় আসনে উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী ও যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার। তিনি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে মাস্ক, সাবান, সেনিটাইজার বিতরণ করেন। তিনি কর্মহীন ২২ হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন। যা অন্য দু’প্রার্থী করেননি। পরবর্তীতে ৪ জুলাই নির্বাচন কমিশন যশোর-৬ কেশবপুর সংসদীয় আসনের স্থগিত হওয়া উপনির্বাচন ১৪ জুলাই নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করেন। ৫ জুলাই থেকে ১২ জুলাই পর্যন্ত আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী ও যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে বেশ জোরেশোরে উপজেলাব্যাপী গণসংযোগ ও পথসভা করেন। যার ফলে উপজেলাব্যাপী শাহীন চাকলাদারের গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। উপজেলাব্যাপী ভোটাররা শাহীন চাকলাদারকে ভোট দেওয়ার জন্য অপেক্ষায় রয়েছেন। ভোটাররা নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।
এদিকে জনবিচ্ছিন্ন বিএনপি ইতিমধ্যে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে। জাতীয় পার্টির প্রার্থী হাবিবুর রহমান গণসংযোগ করলেও কোনো অবস্থান তৈরি করতে পারেনি।

শেয়ার