যবিপ্রবির ল্যাবে যশোর ও মাগুরার আরও ৫২ জনের করোনা শনাক্ত
যশোরে করোনায় মারা গেছে ১৩ জন, আক্রান্ত প্রায় সাড়ে ৬শ’

এস হাসমী সাজু
যশোরে নতুন করে আরো ৪৪ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় সর্বমোট ৬৪৩ জন করোনায় আক্রান্ত হলেন। জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১৩ জন এবং সুস্থ্য হয়ে উঠেছেন ১৬২ জন।
যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে গেলো ২৪ ঘণ্টায় যশোর জেলার ১৩৬টি নমুনা পরীক্ষা করে ৪৬ জনের পজিটিভ ধরা পড়ে। এরমধ্যে পুরাতন রোগী ২ জন। তাদের রোগের বর্তমান অবস্থা জানতে ফলোআপ টেস্ট করা হয়েছিল। মঙ্গলবার সকালে জিনোম সেন্টারের এনএফটি বিভাগের চেয়ারম্যান ড. শিরিন নিগার রিপোর্ট প্রকাশ করেন। এছাড়া মাগুরার ৩৭টি নমুনা পরীক্ষা করে ছয়টি পজেটিভ পাওয়া গেছে। অর্থাৎ যবিপ্রবির ল্যাবে মোট ১৭৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৫২ জনের করোনা পজিটিভ এবং ১২১ জনের নেগেটিভ ফলাফল এসেছে।
জেলা সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহীন জানিয়েছেন, যবিপ্রবি ল্যাবে মঙ্গলবার যশোর জেলার ১৩৬টি নমুনা পরীক্ষা করে ফলোআপ ১টিসহ ৪৫ জনের পজিটিভ ধরা পড়ে। এর মধ্যে যশোর সদরে ৩১ জন, মণিরামপুর উপজেলায় ৭ জন, ঝিকরগাছা ও বাঘারপাড়ায় উপজেলায় ৩ জন করে এবং চৌগাছা উপজেলায় ১ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এছাড়া সোমবার রাতে যশোর শহরে জেডিএল হাসপাতালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে লুৎফর রহমান (৮০) সহ জেলায় ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।
এদিকে মঙ্গলবার যবিপ্রবি ল্যাবে যশোর জেলার নতুন রোগীরা হলেন, যশোরের উপশহরের ২নং সেক্টরের বাসিন্দা মেহেদী ফয়সল (৩৪), একই এলাকার জাফর আলী (৫৩), শহরের বেজপাড়া এলাকার আবু নাছির (৪৭), জেলা বিএমএর সংগঠনের কর্মচারী ও ঘোপ নওয়াপাড়া রোড এলাকার বাসিন্দা বাদল (২৮), শেখহাটি আর্দশপাড়া গ্রামের ইসরত জাহান (২৪), একই গ্রামের আসমাউল হুসনা (৩৪), হারুন অর রশিদ (৪৮) যশোর র‌্যাব-৬ এর সদস্য জিহাদ (২৭), মাহাবুব (২৫), ঘোপ সেন্ট্রাল রোড এলাকার জেসমিন (৫৬), কোতোয়ালি থানার কনস্টেবল রুহুল আমিন (৫২), ডিএসবি অফিসের কর্মকর্তা আব্দুল মান্নান (৩৮), ফেদৌসি (৪৫), রেজওয়ান (১৯), যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের সেবিকা সুমিতা রানি (৫৩), উপশহর সেক্টরের বাসিন্দা সাজিদ (৩২), খড়কি এলাকার মঞ্জুর আলম (৪২), নলডাঙ্গা রোড এলাকার রিংকু রানি দাস (৩৫), ঘোপ সেন্ট্রাল রোড এলাকার অর্নব (৪৭), উপশহর নিউ মার্কেট এলাকার সাকিব (২৫), পুলিশ লাইনের সদস্য নাজমুল (২৫), একই ঠিকানা আল মামুন (২৪), সাইফুল ইসলাম (২৫), আসাদুজ্জামান (৫৮), আনোয়ার হোসেন (৬৫), সাথী (২৮), শহরের পাইপ পট্টি এলাকার শামছুজ্জামান (৩৮) যশোর জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. হালিমাতুজ জোহুরা (৩৬), নীলগঞ্জ তাঁতীপাড়া এলাকার সিরাজুল ইসলাম (৬৩), জেসমিন (৫২) ও দোলনা (৪০)।
ঝিকরগাছা উপজেলায় শনাক্তরা হলেন, নাছির উদ্দিন (২০), ঝিকরগাছা ইসলামী ব্যাংকের কর্মকর্তা আব্দুস সালাম (৩৯) ও সালাউদ্দিন (৩৯)।
মণিরামপুর উপজেলা শনাক্তরা হলেন, তাসলিমা (৩২), আজিজুর রহমান (৪৪), রবিউল ইসলাম (৪০), ইউসুফ আলী বিশ্বাস (৫৫), জনাব আলী (৫৪), সূবর্ণা মোস্তফা (২১) ও শ্রুতি বিশ্বাস (৫০)।
বাঘারপাড়া উপজেলার শনাক্তরা হলেন, আসিম (৬১), আব্দুর রাজ্জাক (৫৭), আরাফাত হোসেন (২৩) এবং চৌগাছা উপজেলায় স্বরুপদাহ গ্রামের একজন পজেটিভ রোগী হলেন ওহিদুল ইসলাম (৫৫)। নতুন আক্রান্তদের হোম আইসোলেশনের আওতায় নিয়ে বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে।