যশোরে ছাত্রবাসে ছাত্রদের জিম্মি করে মোটরসাইকেল ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোর শহরের থেকে একটি মেস থেকে দিনদুপুরে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে কলেজছাত্রের মোটরসাইকেল ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে ৭/৮ জনের একটি দল বেজপাড়া টিবি ক্লিনিক এলাকার একটি বাসায় হানা দেয়।
ভুক্তভোগী কলেজ ছাত্র বাঘারপাড়া উপজেলার গাইদঘাট গ্রামের অবনি সরকারের ছেলে অমিত কুমার সরকার জানিয়েছেন, তিনি যশোরের সরকারি এমএম কলেজে ভূগোল বিভাগে ৪র্থ বর্ষে লেখাপড়া করেন। শহরের বেজপাড়া টিবি ক্লিনিক এলাকার দিলিপ কুমার ঘোষের মেসে থাকেন অমিত। বুধবার দুপুর দেড়টার দিকে ৭/৮ জন মেসের গেটের কড়া নাড়ে। ভিতর থেকে গেট খুলে দেয়া হয়। এরপর তারা ভিতরে প্রবেশ করে। এসময় বারান্দায় রাখা একটি আরটিআর অ্যাপাচি যশোর-ল-১২-৭৮৬৭ নম্বর মোটরসাইকেলের কাছে যায়। সেখান থেকে মোটরসাইকেলের মালিককে খোঁজ করে। মালিক অমিত আসার পরে তার কাছ থেকে অস্ত্রের মুখে একটি স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর করিয়ে নেয়। ওই স্ট্যাম্পে অমিতের কাছে এক লাখ ৮০ হাজার টাকা পাবে বলে লেখা ছিল। এছাড়া তার কাছে দুইটি মোবাইলের সিমকার্ড, ৬শ’ টাকা এবং মোটরসাইকেলটি ছিনিয়ে নিয়ে চলে যায়। বিষয়টি নিয়ে বাড়াবাড়ি না করার জন্য হুমকি দেয়া হয়। খবর পেয়ে সদর ফাঁড়ি পুলিশের ইনচার্জ পরিদর্শক তুষার কুমার মন্ডলের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে যান। পুলিশ বিষয়টি শুনেই চলে আসে।
ভুক্তভোগী অমিত আরো জানিয়েছে, দুষ্কৃতকারীদের বয়স ২০ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে হবে। পুলিশ বিষয়টি দেখে বলেছে আমরা সন্ধ্যায় আবারো আসবো। এব্যাপারে পুলিশ পরিদর্শক তুষার কুমার মন্ডল বলেছেন, ঘটনা শুনে সেখানে গিয়েছিলাম। বিষয়টি খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার