প্রেসক্রিপশনের ওষুধ না দিয়ে প্রতারণা ॥ যশোরে বৃদ্ধকে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেয়ার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোরে সিরাজুল ইসলাম নামে এক বৃদ্ধকে প্রেসক্রিপশনে লেখা ওষুধ না দিয়ে অন্য ওষুধ দিয়ে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে একই এলাকার সৌরভ ফার্মেসির মালিক রবিউল ইসলাম রবির বিরুদ্ধে। ওই ব্যক্তিকে তার প্রেসক্রিশনের ওষুধ না দিয়ে শহরের বারান্দী মোল্যাপাড়া আমতলা মোড়ের রবি মনগড়া কিছু ওষুধ দিলে তা খেলে তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। সোমবার প্রেসক্লাব যশোরে সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন ওই বৃদ্ধের ছেলে মিজানুল ইসলাম। এ সময় উপস্থিত ছিলেন শাহাজান ইসলাম, ইমরান হুসাইন, বরকত খান প্রমুখ।
লিখিত বক্তব্যে মিজানুল ইসলাম বলেন, তার বৃদ্ধ পিতা দীর্ঘদিন ধরে নানা রোগে আক্রান্ত। গত বছরের মাঝামাঝি সময়ে কার্ডিওলজি ডাক্তার ইসাহক আলী খানের চিকিৎসা গ্রহণ করে বেশ সুস্থ ছিলেন। গত ২৫ মে সন্ধ্যায় তার বৃদ্ধ পিতা আমতলা মোড়ের সৌরভ ফার্মেসিতে প্রেসক্রিপশন নিয়ে ওষুধ কিনতে যান। ফার্মেসির মালিক রবিউল ইসলাম ররি প্রেসক্রিপশনের ওষুধ না দিয়ে নিজের মনগড়া কয়েকটি ওষুধ দেন। যা সেবন করে তার পিতা গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাৎক্ষণিক তার পিতাকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরবর্তীতে পিতার অবস্থার অবনতি হওয়ায় ঢাকা ল্যাব এইড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে তিনি এ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।
তিনি আরো বলেন, অন্য ওষুধ দেয়ার কারণ যানতে চাইলে রবিউল ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে মারপিট করার হুমকি দেন ও গালিগালাজ করেন। রবিউল ইসলাম রবি একজন পল্লী চিকিৎসক হয়েও নিজেকে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক পরিচয় দেন। রবিউলের অপচিকিৎসা থেকে এলাকাবাসীকে বাঁচাতে তিনি প্রশাসনের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

শেয়ার