যশোরে নতুন করে ৩ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত

এস হাসমী সাজু
যশোর জেলায় গেলো ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৩ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ সময় একজন চিকিৎসক করোন জয় করেছেন। রোববার বিকালে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ল্যাব থেকে যশোর জেলা সিভিল সার্জন অফিসে পাঠানে ৮১টি নমুনার মধ্যে নতুন ৩টি পজেটিভ রিপোর্ট পাওয়া যায়। এ সময় জেলায় নতুন করে ৪৪টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এর মধ্যে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে ১৮টি এবং খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ল্যাবে ২৬টি পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় সর্বমোট ১০৭জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত করলো স্বাস্থ্য বিভাগ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহীন।
সিভিল সার্জন অফিসের এমওসিএম ডা. রেহেনেওয়াজ জানান, গত ২৮ মে সিভিল সার্জন অফিস থেকে ৮১টি নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ল্যাবে পাঠানো হয়। এর মধ্যে ১৫টি ফলোআপ নমুনা ছিলো। বাকি নতুন ৬৬টি নমুনা পরীক্ষা করে জেলায় নতুন করে ৩টি পজেটিভ রিপোর্ট আসে। পজেটিভ ৩ জনের মধ্যে ১ জন সিভিল সার্জন অফিসের ওয়ার্কসপের কর্মী, অপরজন হলেন অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বেচ্ছাসেবী এবং যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন মাগুরার আড়পাড়া গ্রামের বাসিন্দা মীর্জা আবিদ (২৬) নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন। এছাড়া যশোর জেনারেল হাসপাতালের হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. তৌহিদুল ইসলাম করোনা জয় করেছেন। তাকে স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও ছাড়পত্র দিয়েছেন সিভিল সার্জন। এ নিয়ে জেলায় সর্বমোট ৬৮ জন করোনা জয় করেছে। এ সময় জেলায় নতুন করে ৪৪টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এর মধ্যে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে ১৮টি এবং খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ল্যাবে ২৬টি পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে।
এদিকে সিভিল সার্জন অফিসের সূত্র মতে, গেলো ২৪ ঘণ্টায় জেলায় মোট ১৪ জনকে নতুন করে হোম ও প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। এর মধ্যে হোমে ১২ জন ও ২ জনকে প্রতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। এ সময়ে আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ২৮ জন। এছাড়া গেলো (১০মার্চ থেকে ৩১মে পর্যন্ত) মোট ৮১দিনে জেলায় সর্বমোট ৬হাজার ৭০৪ জনকে হোম ও প্রতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। এর মধ্যে ৬ হাজার ৫১৬জন সুস্থ হয়ে উঠায় জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে তাদেরকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে জেলায় ১৮৮ জন হোম ও প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন।

শেয়ার