যশোরে নির্মাণ শ্রমিক আল-আমিন খুনের ঘটনায় ১৩ জনের নামে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোর শহরের স্টেডিয়ামপাড়ায় নির্মাণ শ্রমিক আল মামুন ওরফে আল-আমিন খুনের ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। নিহতের পিতা আবুল হোসেন বাদী হয়ে ১৩ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আরো কয়েকজনের বিরুদ্ধে শনিবার কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলা করেছেন। মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে এ ঘটনায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছেন কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান।
পুলিশ জানিয়েছে, গত শুক্রবার সন্ধ্যারাতে শহরের স্টেডিয়ামপাড়া এলাকায় দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে নির্মাণ শ্রমিক আল মামুন ওরফে আল আমিন (২২) খুন হন। গত ২৪ ঘণ্টায় এই ঘটনায় পুলিশ কাউকে করতে পারেনি। আল আমিনের লাশের ময়নাতদন্ত শেষে শনিবার দুপুরে তার গ্রামের বাড়ি কেশবপুরের উপজেলার ব্রক্ষ্মকাঠি নিয়ে যাওয়া হয়।
সূত্র মতে, গত শুক্রবার ২৯ মে সন্ধ্যারাত সাড়ে ৭ টার পর আল মামুন ওরফে আল আমিন তার দুই বন্ধু শহরের স্টেডিয়ামের কাছে একটি বটগাছের নিচে বসে গল্প করছিল। এসময় কয়েকজন দুর্বৃত্ত এসে আল আমিনকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে। গুরুতর আহত অবস্থায় আল মামুনকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হলে কিছুক্ষণ পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এই ঘটনায় সিয়াম নামে এক যুবকসহ ৫জনকে আটকের গুঞ্জন উঠেছে। কিন্তু পুলিশের পক্ষ থেকে আটকের বিষয়টি অস্বীকার করা হয়েছে।
কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান বলেছেন, এই ঘটনায় নিহতের পিতা আবুল হোসেন বাদী হয়ে ১৩ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আরো কয়েকজনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। তবে এখনো এই মামলায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

শেয়ার