যশোরে করোনা রোগের চিকিৎসা!

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ দুনিয়াব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসের এখনো ওষুধ ও প্রতিষেধন আবিষ্কার করতে পারেনি বিজ্ঞান। কিন্তু যশোরে তিন কবিরাজ রীতিমতো চিকিৎসা চালিয়ে যাচ্ছিলেন। এমন খবর পেয়ে প্রতারকদের সন্ধানে নামে জেলা প্রশাসন। শনিবার দুপুরে সদর উপজেলার নরেন্দ্রপুর এবং বিজয়নগর গ্রামে অভিযান চালিয়ে তিন প্রতারককে আটক করে। তাদের কাছ থেকে ৮ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।
সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) অফিসের পেশকার নাজমুল হুসাইন জানিয়েছেন, করোনা রোগের চিকিৎসায় কবিরাজির নামে সাধারণ লোকের সাথে প্রতারণা করছে এমন অভিযোগের ভিত্তিতে সহকারী কমিশনার (ভূমি) জাকির হোসেনের নেতৃত্বে শনিবার দুপুরে সদর উপজেলার নরেন্দ্রপুর গ্রামে অভিযান চালানো হয়। এসময় ওই গ্রামের ওয়াহিদা খাতুন নামে এক নারী কবিরাজের বাড়িতে গিয়ে কিছু রোগী দেখছেন বলে জানতে পারেন। ওই কবিরাজের বিরুদ্ধে মানুষের সাথে প্রতারণা করা হয় বলে অভিযোগ থাকায় তাকে এক হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
এরপর একই গ্রামের বেগম নামে আরেক নারী কবিরাজের বাড়ি গিয়েও একই অবস্থা দেখতে পান। এসময় তাকেও এক হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এর পরই সদর উপজেলার বিজয়নগর গ্রামের ইসলাম নামে আরেক কবিরাজের বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। সেখানেও একই অবস্থা থাকায় তাকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

শেয়ার