পিতা বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নে আদালতে মেয়ের স্বীকারোক্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ জন্মদাতা পিতার বিরুদ্ধে মেয়েকে যৌন নিপীড়নের ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। ৩০ মে মেয়ের মা বাদী হয়ে তার পিতার বিরুদ্ধে যশোর কোতোয়ালি মডেল থানায় এই মামলা করেন। মামলার আসামি বেনাপোল পোর্ট থানার ছোট আঁচড়া গ্রামের বাসিন্দা মৃত সাহেব আলীর ছেলে শফিকুল ইসলাম। বর্তমানে তিনি যশোর শহরের শংকরপুর ফিরোজ মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়া হিসিবে বসবাস করেন।
মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে, ঘটনার শিকার মেয়েটি ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে লেখাপড়া করে। গত ১৫ মার্চ সকাল ৯ টার দিকে স্ত্রী বাড়িতে না থাকার সুযোগে শফিকুল ইসলাম নিজ মেয়ের উপর যৌন নিপীড়ন চালায়। বিষয়টি কিশোরী তার মাকে জানালেও স্বামী শফিকুল ইসলামকে এহেন কর্মকা- থেকে বিরত রাখতে চেষ্টা করেন। এর পর গত ৯ এপ্রিল কিশোরী তার মায়ের সাথে ঘরের মধ্যে ঘুমিয়ে ছিল। গভীর রাত ১ টায় পিতা শফিকুল ইসলাম বারান্দা থেকে ঘরের মধ্যে ঢুকে যৌননিপীড়নের চেষ্টাকালে মেয়ে চিৎকার দিলে তার মা জেগে ওঠে। পরে বিষয়টি জানাজানির এক পর্যায় গত শুক্রবার ২৯ মে কোতোয়ালি মডেল থানায় খবর দিলে পুলিশ শফিকুল ইসলামকে আটক করে। শনিবার কিশোরী আদালতে ২২ ধারার জবানবন্দি দিয়েছে। আর তার পিতা শফিকুল ইসলামকে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

শেয়ার