মেহেরপুরে তালাবদ্ধ ঘরে স্ত্রীর লাশ, আহত স্বামী

সমাজের কথা ডেস্ক॥ মেহেরপুরে তালাবদ্ধ ঘর থেকে স্ত্রীর গলিত লাশ আর একই ঘর থেকে তার আহত স্বামীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

গাংনী থানার ওসি ওবাইদুর রহমান জানান, শুক্রবার সকাল ৮ টার দিকে বামন্দী বাজারের একটি বাড়ি থেকে সুন্দরী খাতুন (৪৮) নামে এই নারীর লাশ উদ্ধার করেন তারা। একই সঙ্গে তার আহত স্বামী রুস্তম আলীকে (৫৫) হাসপাতালে পাঠান। তারা দুইজনই বামুন্দী বাজারের পরিছন্নতাকর্মী ছিলেন।

ওসি বলেন, সকাল ৮ টার দিকে স্থানীয়রা ওই বাড়ির পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় গন্ধ পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ গিয়ে ঘরের তালা ভেঙে সুন্দরী খাতুনের অর্ধগলিত লাশ দেখতে পায়। আর রুস্তুম আলীকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করা হয়েছে।

আহত রুস্তুমকে গাংনী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ওসি বলেন, পরিকল্পিতভাবেই কোনো চক্র এই হত্যাকা- ঘটিয়েছে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন থেকে জানা যাবে কত দিন আগে এই হত্যাকা- ঘটেছে। পুলিশ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তারে মাঠে নেমেছে। তাছাড়া রুস্তুম আলী সুস্থ হলে হত্যকা-ের কারণ ও হত্যাকারী সম্পর্কে জানা যেতে পারে।

জেলার সহকারী পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

তিনি বলেন, “কোনো কিছু ছিনিয়ে নেওয়ার কারণেও এই হত্যাকা- ঘটতে পারে। পুলিশ একাধিক ক্লু নিয়ে কাজ শুরু করেছে।”

প্রতিবেশী কাওসার আলী বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, এই দম্পতির বাড়ি একই উপজেলার নতুন মটমুড়া গ্রামে। তারা বামন্দী বাজারে টাবুর বাড়ির একটি ঘর ভাড়া নিয়ে চার বছর ধরে বসবাস করছেন। তারা দুইজনই বামুন্দী বাজারের পরিছন্নতাকর্মী ছিলেন।

সর্বশেষ মঙ্গলবার দুপুরে তাদের বাজারে কাজ করতে দেখা গেছে বলে প্রতিবেশী সুরাইয়া খাতুন জানিয়েছেন।

শেয়ার