বাগেরহাটে প্রতিপক্ষের স্বামী-স্ত্রীসহ দু’জন আহত

বাগেরহাট প্রতিনিধি ॥ বাগেরহাটে প্রতিপক্ষের হামলায় আওয়ামী লীগ কর্মী আবুবকর হাওলাদার (৫৫) ও তার স্ত্রী সালেহা পারভীন (৪৯) গুরুতর আহত হয়েছেন। বুধবার সকালে বাগেরহাট সদর উপজেলার শ্রীঘাট এলাকার জে.কে হ্যাসারীর ভিতর এই হামলার ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছে। এঘটনায় আবুবকর হাওলাদার বাদী হয়ে বাগেরহাট মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন।
গুরুত্বর আহত অবস্থায় বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি আবুবকর হাওলাদার জানান, তিনি জে.কে হ্যাসারীর মালিক পক্ষের কাছ থেকে চুক্তি নিয়ে গত তিন বছর ধরে ওই জমি ভোগ দখল করে আসছেন। বুধবার সকালে তিনি ওই ফার্মে কাজ করার সময় শ্রীঘাট এলাকার ইলিয়াস হোসেনর নেতৃত্বে ১২/১৪ জনের একটি দল রামদা, লোহার রড, লাঠি সোটাসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তার উপর হামলা চালায়। এসময় তার চিৎকারে স্ত্রী সালেহা পারভীন ছুটে এসে তাকে রক্ষা করতে গেলে তাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে ও স্ত্রীর পরনের কাপড় চোপড় টেনে বেসামালকরিয়া শ্লীলতাহানী ঘটায়। আসামিরা ঘর থেকে স্বর্ণ নগদ টাকা, ধান ও ছাগল লুট করে নিয়ে যায়। যার আনুমানিক মুল্য ২ লক্ষ ৭২ হাজার টাকা। এসময় ডাক চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে আসলে আসামিরা খুন জখমের হুমকি দিয়ে ঘটনা স্থল ত্যাগ করে। পরে স্থনীয়রা উদ্ধার করে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।
সালেহা পারভীন বলেন, হঠাৎ স্বামীর চিৎকার শুনে তিনি ছুটে গিয়ে দেখেন কয়েকজন মিলে তাকে মারপিট করছে। এসময় তিনি স্বামীকে রক্ষা করতে গেলে প্রতিপক্ষরা তাকেও বেদম প্রহার করে। এক পর্যায়ে তার স্বামী দৌড়ে পালালে তিনি ঘরে মোবাইল নিতে যান। এসময় দরজা আটকিয়ে তাকে লাঞ্চিত করাসহ শ্লীতাহানীর চেষ্টা করা হয়। পরে প্রতিবেশিরা তাকে উদ্ধার করে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।
এবিষয়ে বাগেরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহাতাব উদ্দীন জানান,এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তদন্ত পরবর্তি দ্রুত আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার