ঘূর্ণিঝড় আম্পান মোকাবেলায় পাইকগাছা প্রশাসনের প্রস্তুতি সভা

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি ॥ ঘূর্ণিঝড় আম্পান মোকাবেলায় পাইকগাছা উপজেলা প্রশাসন প্রস্তুতি সভা করেছে। রোববার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে ইউএনও জুলিয়া সুকায়নার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান গাজী মোহাম্মদ আলী, মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর, সহকারি কমিশনার (ভূমি) মুহাম্মদ আরাফাতুল আলম, ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল মজিদ গোলদার, রুহুল আমিন বিশ্বাস, কে এম আরিফুজ্জামান তুহিন, গাজী জুনায়েদুর রহমান, চিত্ত রঞ্জন মন্ডল, উপজেলা কৃষি অফিসার এএইচএম জাহাঙ্গীর আলম, সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা পবিত্র কুমার দাশ, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ইমরুল কায়েস, প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ বিষ্ণুপদ বিশ্বাস, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা রেজাউল করিম, সমাজসেবা কর্মকর্তা সরদার আলী আহসান, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নাজমুল হক, পরিসংখ্যান কর্মকর্তা মোজাফফার হোসেন, সহকারি প্রোগ্রামার মৃদুল কান্তি দাশ, একাডেমিক সুপার ভাইজার মীর নূরে আলম সিদ্দিকী, সহকারি শিক্ষা অফিসার ঝংকর ঢালী, মির্জা মিজানুর রহমান, আসাদুজ্জামান, একটি বাড়ী একটি খামার প্রকল্পের প্রকল্প সমন্বয়কারি জয়া রাণী রায়, সহকারি পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা রুহুল আমিন, পাইকগাছা প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি মোঃ আব্দুল আজিজ ও যুগ্ম সম্পাদক এন ইসলাম সাগর, ইউপি সদস্য আব্দুর রাজ্জাক।
সভায় ঘূর্ণিঝড় আম্পান মোকাবেলায় উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়। করোনার কারণে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার স্বার্থে সাইক্লোন সেল্টারসহ উপজেলার সকল প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে প্রস্তুত রাখা, প্রধান শিক্ষক ও ভলেনটিয়ারদের সার্বক্ষনিক প্রস্তুত থাকা, গর্ভবর্তী মহিলা, শিশু ও প্রতিবন্ধিদের আগে ভাগেই আশ্রয় কেন্দ্রে স্থানান্তর করা। মেডিকেল টিম প্রস্তুত রাখা এবং দু’একদিনের মধ্যে এলাকার সকল ধানকাটা সম্পন্ন করাসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত হয়। এছাড়াও সরকারি কর্মকর্তাদের কর্মস্থল ত্যাগ না করার নির্দেশনা প্রদানসহ রোববার থেকেই এলাকায় মাইকিং করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ ও ইউনিয়ন পর্যায়ে দূর্যোগ প্রতিরোধ কমিটি গঠন করা হয়। সভায় উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে ১০ ইউনিয়নে হ্যান্ড মাইক ও পিপিই প্রদান করা হয়।

শেয়ার